আজ চূড়ান্ত হবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলের ভবিষ্যৎ

113

সুপ্রভাত বগুড়া (খেলা-ধুলা): বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবলের ভবিষ্যৎ চূড়ান্ত হবে আজ। রোববার দুপুর ২টায় জরুরি সভায় বসবে বাফুফে নির্বাহী কমিটি। এর আগে লিগ কমিটির সভায় ক্লাবগুলো লিগ বাতিলের পক্ষে মত দেয়। যদিও ফুটবলারদের অনেকেই খেলার পক্ষে।

সময়ের সাথে জটিলতা বাড়ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ফুটবল নিয়ে। করোনাভাইরাস বাফুফেকে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে অন্যরকম এক সংকটে। শঙ্কা নিয়ে মাঠে নামতে চায় না বেশীর ভাগ ক্লাব। সেক্ষেত্রে প্রস্তাব আসছে লিগ বাতিল ঘোষণার জন্য। কিন্তু সেক্ষেত্রে পূরণ করা যাবে না এএফসির শর্ত।

লিগ চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা না গেলে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হবে ২০২১ এএফসি কাপে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব নিয়ে। সে বিবেচনায় ৬ রাউন্ডের পারফর্মেন্সের ভিত্তিতে ঘোষনা করা হতে পারে চ্যাম্পিয়ন। এ পন্থাতে ইতিমধ্যে চ্যাম্পিয়ন খুঁজে নিয়েছে ফ্রান্স ও বেলজিয়াম লিগ কর্তৃপক্ষ।

এমন কি ভারতের আইলিগও সে পথেই হেটেছে। তবে ওই সব দেশে খেলার পরিমান ছিল ৬০ শতাংশের উপরে। সেখানে মাত্র ২৫ শতাংশ লিগ ম্যাচের পারফর্মেন্সের ওপর ভিত্তি করে চ্যাম্পিয়ন খুঁজে নেয়া- কতোটা যৌক্তিক হবে? তা নিয়ে রয়েছে সমালোচনা।

বিপিএলের ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকলেও জেমি ডের সাথে চুক্তির বিষয়টি প্রায় গুছিয়ে এনেছে বাফুফে। গত শুক্রবার ছিল জেমির সাথে বাফুফের চুক্তির শেষদিন। করোনাভাইরাস সহ আরো কিছু কারণেআগামী তিন মাস জাতীয় দলের কোন কার্যক্রম নেই।

সাশ্রয়ের পরিকল্পনায় জেমিকে তিন মাস পর নতুন চুক্তি করার প্রস্তাব দিয়েছিল বাফুফে, তাতে গ্রিন সিগন্যাল এসেছে ইংল্যান্ড থেকে। সবমিলিয়ে চুক্তির বিষয়টি এখন বেশ পরিষ্কার। ১৬ মে থেকে ১৫ আগস্ট- এই তিনমাস কাগজে কলমে বেকার থাকবেন জেমি, ২০২০ এর ১৬ অগাস্ট থেকে তৃতীয় ধাপে শুরু হবে তার বাংলাদেশ অধ্যায়।

বাংলাদেশ ফুটবলে বেশীদিন স্থায়ী হননা বিদেশী কোচেরা- এমন দুর্নামের বিরুদ্ধে বাফুফের জবাব হতে পারে জেমি ডের ধারাবাহিকতা। ২০১৮ এর ১৭ মে দায়িত্ব নেবার পর মাঝে চুক্তি বাড়িয়েছেন একবার। এই সময়ে ব্রিটিশ মাস্টারমাইন্ডের অধীনে মোট ১৯ ম্যাচ খেলে ৮টি তে জিতেছে জামালরা, সাফল্যের হার ৪২ শতাংশের কিছু বেশি।