আত্রাই নদীর পানি বিপদসীমার ৪০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত বেড়িবাঁধ ভেঙে পানিবন্দি হাজারো মানুষ

33
আত্রাই নদীর পানি বিপদসীমার ৪০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত বেড়িবাঁধ ভেঙে পানিবন্দি হাজারো মানুষ। ছবি-আবুহেনা

সুপ্রভাত বগুড়া (আবুহেনা,আত্রাই(নওগাঁ) প্রতিনিধি: নওগাঁর আত্রাইয়ে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। আত্রাই নদীর পানি হু হু করে বেড়েই চলেছে। বর্তমানে আত্রাই নদীর পানি বিপদসীমার প্রায় ৪০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ইতোমধ্যেই পানির প্রবল তোড়ে উপজেলার জগদাস নামক স্থানে বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে ওই গ্রামসহ আশপাশের কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

আত্রাই মাছ বাজার পানির নিচে তলিয়ে যাওয়ায় মাছ বেচা-কেনা বন্ধ হয়ে গেছে। আত্রাই-সিংড়া সড়কের মালিপুকুর নামক স্থানে ভাঙন দেখা দেয়ায় সড়ক রক্ষার জন্য ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে চেষ্টা করা হচ্ছে।
আত্রাই বান্দাইখাড়া সড়কে অবস্থা আশাংকা জনক যে কোন সময় ভাঙ্গনের কবলে পড়তে পারে।

এদিকে নদীর পানি বৃদ্ধির ফলে উপজেলার উদনপৈ,রায়পুর, মিরাপুর,জাতোপাড়া, জাতআমরুল জিয়ানীপাড়া,সাহেবগঞ্জ পাল পাড়া, মালিপুকুর, জগদাস, শিকারপুর, পারমোহনঘোষ,নন্দনালী,শলিয়া,লালুয়াসহ নদী এলাকার গ্রামের হাজার হাজার মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। নন্দনালী গ্রামের মোস্তাফিজুর বলেন,আমাদের গ্রামের অবস্থা খুব খারাপ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে গ্রামের অনেক মানুষ।

আত্রাই বান্দাইখাড়া সড়কের যে অবস্থা যে কোন সময় ভাঙ্গনের কবলে পরতে পাড়ি আমরা। প্রশাসন, সড়ক ও জনপদের জরুরি পদক্ষেপ কামনা করছি। জগদাস গ্রামের রহিমা বলেন, বেড়িবাঁধ ভেঙে আমাদের গ্রামের ঘর বাড়িতে পানি ঢুকে গেছে। আমরা চরম আতঙ্কের মধ্যে দিনাতিপাত করছি।

ইউপি চেয়ারম্যান আফছার আলী প্রামাণিক বলেন, মালিপুকুর নামক স্থানে ভাঙন দেখা দিয়েছে। এখানে ভেঙে গেলে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়ে যাবে। এ ছাড়াও আত্রাই সিংড়ার সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে। তাই আমি ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে তরিৎ ভাঙনরোধে ব্যবস্থা গ্রহন করেছি। সরকারীভাবে এর জন্য এখন পর্যন্ত কোন বরাদ্দ পাইনি।