ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাত: নিরাপত্তা কাউন্সিলকে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছে চীন

100

সুপ্রভাত বগুড়া (আন্তর্জাতিক): ফিলিস্তিনের গাজায় চলমান ইসরায়েলি নৃশংসতার বিরুদ্ধে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। আর এজন্য দায়ী যুক্তরাষ্ট্র। এমন অভিযোগ এনে নিরাপত্তা কাউন্সিলকে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই।

চীনের বার্তা সংস্থা সিনহুয়াকে তিনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র বরাবরই আন্তর্জাতিক ন্যায়বিচারের বিপরীতে অবস্থান নিয়েছে। আর সেজন্য নিরাপত্তা পরিষদ ইসরায়েল এবং হামাসের মধ্যে কোনো শান্তি চুক্তিতে বার বার ব্যর্থ হয়।

এদিকে গাজায় রাতভর বিমান হামলার পর রোববার (১৬ মে) সকালেও বোমা বর্ষণ করেছে ইসরায়েল। বাদ যায়নি আবাসিক ভবনও। সবশেষ হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৭০। জবাবে তেল আবিবে রকেট হামলা চালিয়েছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস।

হামলায় গুঁড়িয়ে দেয়া আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল জাজিরা ও এপির ভবনটি জঙ্গিরা ব্যবহার করতো দাবি করে, গাজায় আগ্রাসন অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বিন ইয়ামিন নেতানিয়াহু। এদিকে গাজাসহ অধিকৃত পশ্চিমতীরে বিক্ষোভে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনীর ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে।

অবরুদ্ধ গাজার হাসপাতালে এখন আহতদের আর্তনাদ আর চিৎকার। প্রতি মুহূর্তেই ইসরায়েলি বাহিনীর বোমার স্প্লিন্টার নিয়ে হাসপাতালে আসছেন ফিলিস্তিনিরা। ইহুদি বাহিনীর বর্বরতার শিকার থেকে রেহাই মেলেনি নিষ্পাপ শিশুদের। রোগীর চাপ সামাল দিতে গিয়ে অসহায় ডাক্তার ও নার্স।