একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার মধ্যদিয়ে শক্তি দেখিয়ে চলেছে উত্তর কোরিয়া

39
একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার মধ্যদিয়ে শক্তি দেখিয়ে চলেছে উত্তর কোরিয়া

একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার মধ্যদিয়ে নিজেদের সামরিক শক্তি দেখিয়ে চলেছে উত্তর কোরিয়া। এরই ধারাবাহিকতায় এবারে উড়োজাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করল দেশটি। স্থানীয় সময় শুক্রবার এতথ্য নিশ্চিত করেছে দেশটির গণমাধ্যম কেসিএনএ।

সেখানে বলা হয়, বৃহস্পতিবার উড়োজাহাজ বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্রটি পরীক্ষামূলকভাবে ছোড়া হয় এবং এর কার্যকারিতা যাচাই করা হয়। একবারেই নতুন এই ক্ষেপণাস্ত্রটিতে অথ্যাধুনিক  কিছু প্রযুক্তি যোগ করা হয়েছে বলেও জানা গেছে। গেল সপ্তাহেও, উচ্চগতিসম্পন্ন হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের সফল উৎক্ষেপণ করেছে দেশটি।

সামরিক শক্তিতে এগিয়ে থাকা দেশগুলোর ক্ষেপণাস্ত্রের সক্ষমতার সাথে পাল্লা দিতে হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র একটি অত্যাধুনিক সংস্করণ বলেও দাবি করে পিয়ংইয়ং। এঘাড়া গত মাসের শুরুতে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা করেছে উত্তর কোরিয়া।

দেশটির ভাষ্য, যুক্তরাষ্ট্রের হাত থেকে নিজেদের প্রতিরক্ষা করতেই ক্ষেপণাস্ত্র সমৃদ্ধ করছে তারা। প্রতিপক্ষ হিসাবে দক্ষিণ কোরিয়াও তালিকায় রয়েছে। কারণ আন্তর্জাতিক নিরাপত্তার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র এবং দক্ষিণ কোরিয়া মিত্র দেশ। এখনও দক্ষিণ কোরিয়ায় মোতায়েন রয়েছে প্রায় সাড়ে ২৮ হাজার মার্কিন সেনা।

এদিকে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা না করতে দেশটির প্রতি নিষেধাজ্ঞা রয়েছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের। তারপরেও বারবার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষায় নড়েচড়ে বসেছে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন ও ফ্রান্স।

শুক্রবারে বিষয়টি নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে বসার কথা রয়েছে তিন দেশের। এদিকে মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বলেন, উত্তর কোরিয়ার এ ধরনের আচরণ সবার জন্য শুধু অস্থিরতা আর নিরাপত্তাহীনতাই বাড়াচ্ছে।  সূত্র: সিএনএন