এবারের টেনিস টুর্নামেন্ট আসর থেকে নাম প্রত্যাহার করেছেন অ্যাশলি বার্টি

68
এবারের টেনিস টুর্নামেন্ট আসর থেকে নাম প্রত্যাহার করেছেন অ্যাশলি বার্টি

সুপ্রভাত বগুড়া (খেলা-ধুলা): করোনা ভাইরাসের অন্যতম হটস্পট যুক্তরাষ্ট্র। এরই মধ্যে ৩১ আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে গ্র্যান্ড স্ল্যাম টেনিস টুর্নামেন্ট ইউএস ওপেন।

তবে এবারের আসর থেকে নাম প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন নারী এককে র‍্যাঙ্কিং শীর্ষ তারকা অ্যাশলি বার্টি।

বৃহস্পতিবার হার্ড কোর্টের এই গ্র্যান্ড স্ল্যাম টুর্নামেন্ট থেকে নিজের নাম প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন অস্ট্রেলিয়ান এই টেনিস তারকা।

গত বছর ফরাসি ওপেন জয়ীর দাবি, যুক্তরাষ্ট্রে করোনার মধ্যে খেলা সংক্রমিত হওয়ার ‘তাৎপর্যপূর্ণ ঝুঁকি’ রয়েছে।

কেবল ইউএস ওপেনই নয়, করোনার কারণে চলতি বছর যুক্তরাষ্ট্রে কোনো টেনিস টুর্নামেন্টেই অংশগ্রহণ করবেন না বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন ২৪ বছর বয়সী বার্টি।

তিনি বলেন, ‘আমার দল এবং আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি চলতি বছর ওয়েস্টার্ন অ্যান্ড সাউদার্ন ওপেন এবং ইউএস ওপেনের জন্য যুক্তরাষ্ট্র সফর করব না।’বার্টি আরও বলেন, ‘আমি দুটি ইভেন্টই পছন্দ করি।

তাই এটা আমার জন্য কঠিন সিদ্ধান্ত ছিল। তবে এখনো কভিড-১৯ সংক্রান্ত তাৎপর্যপূর্ণ ঝুঁকি রয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে আমি আমার দল ও আমাকে দেখাটা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছি না।

আমি ইউএস টেনিস অ্যাসোসিয়েশনের সাফল্যজনক টুর্নামেন্ট কামনা করছি এবং আগামী বছর যুক্তরাষ্ট্রে আসার জন্য মুখিয়ে আছি।’প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাসে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গত একদিনে প্রায় দেড় হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

এতে করে ট্রাম্পের দেশে প্রাণহানি বেড়ে ১ লাখ ৫৩ হাজার ৮৪০ জনে ঠেকেছে। একই সময়ে ৬৭ হাজার আমেরিকানের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এ নিয়ে করোনার ভয়াবহ তাণ্ডবের শিকার দেশটিতে রোগীর সংখ্যা ৪৫ লাখ ৬৮ হাজার ৩৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

আক্রান্ত ও প্রাণহানির বড় একটি অংশ ক্যালিফোর্নিয়া, ফ্লোরিডা, টেক্সাস, নিউ জার্সি, ইলিনয়েস ও জর্জিয়ার মতো অঙ্গরাজ্যগুলোর।

এমতাবস্থায় কার্যকরি ভ্যাকসিনের পথচেয়ে দিন গুনছে সর্বোচ্চ ক্ষমতার দেশটি।