করোনা পরিস্থিতিতে উৎসব নয়; বিকল্প উপায়ে পৌঁছে দেয়া হবে বই : শিক্ষামন্ত্রী

143
করোনা পরিস্থিতিতে উৎসব নয়; বিকল্প উপায়ে পৌঁছে দেয়া হবে বই : শিক্ষামন্ত্রী

সুপ্রভাত বগুড়া (শিক্ষা-সাহিত্য): করোনাভাইরাসজনিত পরিস্থিতিতে এ বছর বই উৎসব হবে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেন, বিকল্প উপায়ে বই উৎসবের ব্যবস্থা করা হবে। আজ বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) দুপুরে এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান শিক্ষামন্ত্রী।

তিনি বলেন, বই উৎসব না হলেও শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে বই পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে।২০১০ সাল থেকে সাধারণত  প্রতিবছর পহেলা জানুয়ারি সারাদেশে বই উৎসবের আয়োজন করা হয়। এদিকে করোনা ভাইরাসজনিত পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আগামী ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

উল্লেখ্য, আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত দেশের সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে (কওমি মাদ্রাসা ছাড়া) ছুটি রয়েছে। এছাড়া আসন্ন শীতে করোনার দ্বিতীয় আঘাত আসার আশঙ্কা রয়েছে। তাই সরকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি।

করোনার কারণে প্রাথমিক সমাপনী, জেএসসি-জেডিসি ও এইচএসসির মতো পাবলিক পরীক্ষাও বাতিল হয়েছে।জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, আগামী শিক্ষাবর্ষে প্রথম থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিতরণের জন্য প্রায় ৩৫ কোটি বই ছাপা হচ্ছে।

এর মধ্যে ১০ কোটি ২৫ লাখ ৮২ হাজার ৫৫৫টি প্রাথমিক স্তরের। আর মাধ্যমিক, দাখিল ও ইবতেদায়ি স্তরের ২৪ কোটি ৪১ লাখ। ৫ থেকে ৮ অক্টোবরের মধ্যে প্রাথমিকের বই ছাপার কার্যাদেশ পেয়েছে মুদ্রণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো। মাধ্যমিকের বই ছাপার কার্যাদেশ দেওয়া হয়েছে অক্টোবরের মাঝামাঝিতে।