করোনা: ‘শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমার’ (৬ মে) সকল আনুষ্ঠানিক কর্মসূচি বাতিল ঘোষণা

174

সুপ্রভাত বগুড়া (ধর্ম ও জীবন): করোনা ভাইরাসের কারণে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের  সবচেয়ে বড় ও প্রধান ধর্মীয় উৎসব ‘শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমার’ (৬ মে) সকল আনুষ্ঠানিক  কর্মসূচি বাতিল করা হয়েছে।শুধু বৌদ্ধ বিহারে অবস্থানরত ভিক্ষুসংঘরা বিহারে ধর্মীয় অনুষ্ঠান, পূজা বন্দনাসহ ধর্মীয়কার্য সমাধা করবেন।

তবে সাধারণ ভক্ত ও উপাসকদের বাসায় থেকে উপাসনা করতে আহ্বান জানানো  হয়েছে।আজ (শনিবার) বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশনের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, করোনার কারণে সরকার ঘোষিত লকডাউনের আওতায় সামজিক দূরত্ব  বজায় রাখতে দেশের সকল অঞ্চলের বৌদ্ধ সংগঠনগুলো আলোচনা সাপেক্ষে আগামী ৬ মে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের সর্বশ্রেষ্ঠ ধর্মীয় উৎসব বৌদ্ধ পূর্ণিমার সকল আনুষ্ঠানিকতা বাতিল করা হয়েছে।

বিশেষ করে বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতি, বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘ, বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশন, বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভা, বাংলাদেশ বৌদ্ধ ভিক্ষু মহাসভা, পার্বত্য ভিক্ষু সংঘ বাংলাদেশ, বনভন্তে শিষ্য সংঘসহ সকল বিহার, প্যাগোডায় কোনরকম শুভ বুদ্ধ পূর্ণিমার আনুষ্ঠানিক কর্মসূচী পালন করা হবে না।

শুধু বৌদ্ধ বিহারে অবস্থানরত অবস্থানরত ভিক্ষুসংঘরা বিহারে ধর্মীয় অনুষ্ঠান, পূজাম বন্দনাসহ ধর্মীয়কার্য সমাধা করবেন। ভক্তবৃন্দ, উপাসক-উপাসিকাগণ নিজ নিজ বাড়িতে অবস্থান করে ধর্মীয় কার্য প্রতিপালন করবেন। এছাড়া করোনা পরিস্থিতিতে হতদরিদ্রদের  সাহায্যের আহ্বান জানানো হয়।