কাঁচা চামড়া রপ্তানিতে ব্যবসায়ীদের অনাগ্রহ প্রকাশ !

40

ভালো ক্রেতা না পাওয়া আর রপ্তানিতে জটিলতাকেই দুষছেন চামড়া ব্যবসায়ীরা!

সুপ্রভাত বগুড়া (ব্যবসা-বাণিজ্য): বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে কোরবানির পশুর কাঁচা ও ওয়েট-ব্লু চামড়া রপ্তানির অনুমতি দিলেও তা নিয়ে আগ্রহ নেই ব্যবসায়ীদের। ভালো ক্রেতা না পাওয়া আর রপ্তানিতে জটিলতাকেই দুষছেন তারা। ফলে কাজে আসছে না সরকারি এ উদ্যোগ। চামড়া শিল্পের বিপর্যয় কাটাতে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে প্রয়োজনে নতুন সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

কোরবানি পশুর চামড়ার ন্যায্য দাম নিশ্চিতে গত ২৯ জুলাই প্রজ্ঞাপন জারি করে আমদানি ও রপ্তানির প্রধান নিয়ন্ত্রকের দপ্তর। এতে কেস-টু-কেস ভিত্তিতে কাঁচা ও ওয়েট-ব্লু চামড়া রপ্তানির অনুমতি দেয়া হয়। কিন্তু এখনো তাতে সাড়া দেননি চামড়া ব্যবসায়ীরা। কাঁচা চামড়া রপ্তানির জন্য মন্ত্রনালয়ে আবেদন করেছেন মাত্র একজন ব্যবসায়ী।

কাঁচা চামড়া ব্যবসায়ীরা বলছেন, হঠাৎ করে রপ্তানির জন্য তারা প্রস্তুত নয়। আগে থেকে রপ্তানির অভিজ্ঞতা না থাকায় কাঙ্ক্ষিত ক্রেতাও মিলছে না। পাশাপাশি, ট্যানারি মালিকদের কাছ থেকে আগের পাওনা টাকা না পাওয়ায় আগ্রহ নেই তাদের। এদিকে পশম ছাড়ানো চামড়া অর্থাৎ ওয়েট-ব্লু রপ্তানি সুযোগ থাকলেও তা আমলে নিচ্ছেন না ট্যানারি মালিকরা। তাদের দাবি, চামড়ার বৈশ্বিক বাজারে মন্দা আর কারখানা স্থানান্তরের জটিলতায় রপ্তানিতে অগ্রসর হচ্ছেন না তারা।

ব্যবসায়ীদের অনাগ্রহের কথা স্বীকার করছেন বাণিজ্যমন্ত্রী নিজেও। সমস্যা সমাধানে সংশ্লিষ্টদের নিয়ে আলোচনায় বসার কথা জানান তিনি। চামড়ার গুণাগুণ যাতে নষ্ট না হয়, সেজন্য আগামী বছর থেকে সারা দেশে স্থানীয় পর্যায়ে কাঁচা চামড়া সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানান বাণিজ্যমন্ত্রী।