চার প্রতিষ্ঠানে ডা. সাবরিনার নথিপত্র চেয়ে চিঠি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন

23
চার প্রতিষ্ঠানে ডা. সাবরিনার নথিপত্র চেয়ে চিঠি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন

সুপ্রভাত বগুড়া ডেস্ক: জেকেজি হেলথ কেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী বিরুদ্ধে করোনাভাইরাসের ভুয়া প্রতিবেদন দিয়ে আট কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে। অভিযোগটি অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটসহ চার প্রতিষ্ঠানে নথিপত্র চেয়ে চিঠি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল রোববার (১৯ ‍জুলাই) এসব চিঠিপত্র পাঠিয়েছেন অভিযোগটির অনুসন্ধান কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচালক সেলিনা আখতার মনি।

আজ সোমবার কমিশনের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য জানান, গতকাল এসব চিঠি পাঠানো হয়েছে। জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের পরিচালক (প্রশাসন), বাংলাদেশ ব্যাংকের বিআইএফইউ প্রধান, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কর অঞ্চল-১০ এর কর কমিশনার এবং যৌথ মূলধন কোম্পানি ও ফার্মসমূহ পরিদপ্তরের (আরজেএসসি) নিবন্ধকের কাছে সংশ্লিষ্ট তথ্য চেয়ে চিঠি পাঠানো হয়।

ডা. সাবরিনা জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের কার্ডিয়াক সার্জারি বিভাগের রেজিস্ট্রার ছিলেন। গত ১২ জুলাই গ্রেফতার হওয়ার পর তাকে বরখাস্ত করে মন্ত্রণালয়। এখন তিনি জেলহাজতে রয়েছেন। সাবরিনার বিরুদ্ধে অভিযোগ, সরকারি চাকরিতে বহাল থেকে ডা. সাবরিনা তার স্বামী আরিফ চৌধুরীর সহায়তায় প্রতারণা ও জালিয়াতির মাধ্যমে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে করোনা রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করে ১৫ হাজার ৪৬০টি ভুয়া মেডিকেল রিপোর্ট প্রস্তত ও সরবরাহ করেছেন।