জয়পুরহাটে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন- প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

124

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ জয়পুরহাট জেলার কালাই উপজেলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা, আধুনিক বাংলাদেশের স্থপতি জননেত্রী শেখ হাসিনা’র গতিশীল নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে অভূতপুর্ব অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। আর্কিটেক্ট অব ডিজিটাল বাংলাদেশ জনাব সজীব ওয়াজেদ জয়-এর সার্বিক নির্দেশনায় ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গড়ার কাজ দৃঢ় প্রত্যয়ে এগিয়ে চলছে।

তারই ধারাবাহিকতায় আজ ০৯ এপ্রিল বেলা ১১টায় শনিবার জয়পুরহাট জেলার কালাই উপজেলার সন্নিকটে বগুড়া-জয়পুরহাট মহাসড়কের বালাইট মোড়ে ‘শেখ কামাল আইটি টেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার (১১টি)’ স্থাপনে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী পরিচালিত বাংলাদেশ ডিজেল প্ল্যান্ট লিমিটেড এর বাস্তবায়ন ও বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃক ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, জয়পুরহাট এর আয়োজনে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টার-এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও ফলক উন্মোচন করেন প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ।

এসময় বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, জেলা প্রশাসক মোঃ শরীফুল ইসলাম সহ নেতৃবৃন্দ। বেলা সাড়ে এগারোটায় কালাই সরকারি মহিলা কলেজ মাঠে আলোচনা সভা বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ এর হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ হাইটেক কর্তৃপক্ষ বিকর্ন কুমার ঘোষ।

আমন্ত্রিত অতিথির বক্তব্য রাখেন জয়পুরহাট জেলা প্রশাসক মোঃ শরীফুল ইসলাম,পুলিশ সুপার মাছুম আহম্মদ ভুইয়া পিপিএম। জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আরিফুর রহমান রকেট, জেলা আওয়ামীলিগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, কালাই পৌর সভার মেয়র রাবেয়া সুলতানা, উপজেলা নির্বাহি অফিসার টুকটুক তালুকদার, উপজেলা আ,লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিগ্রেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ মোঃ রফিকুল ইসলাম ও সিনিয়র সচিব তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম। অনুষ্টানটি সার্বিক ভাবে পরিচালনা করেন কালাই উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মিনফুজুর রহমান মিলন।

এম রাসেল আহমেদ/ সুপ্রভাত বগুড়া