টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর চাল পাচারে মামলা

27
টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর চাল পাচারে মামলা। ছবি-আ: হামিদ

সুপ্রভাত বগুড়া (আ: হামিদ মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধি): জব্দ করার দুইদিন পর খাদ্য বান্ধব কর্মসুচীর চাল পাচারে মামলা। টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার পার্শ্ববর্তী ধনবাড়ীতে জব্দ হওয়া খাদ্যবান্ধব কর্মসূচী ও ত্রাণের ৭১ বস্তা চাল নিয়ে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছেছিল।

জব্দ করা ৭১ বস্তা চালের মধ্যে ২৪ বস্তা চাল মধুপুর উপজেলার গোলাবাড়ী ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুস ছাত্তারের নিকট থেকে এবং বাকী চাল বিভিন্ন জনের কাছে থেকে কিনেছেন বলে চাল ব্যবসায়ী নূরুল ইসলাম স্বীকার করেছেন। সোমবার (৮ জুন) ও মঙ্গলবার (৯ জুন) মধুপুর ও ধনবাড়ী উপজেলা প্রশাসনের দফায়-দফায় জিজ্ঞাসাবাদে সরকারী চাল কেনা-বেচার এ তথ্য নিশ্চিত করে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন চাল ব্যবসায়ী নূরুল ইসলাম ও ভাইঘাট বাঘিল রজনীগন্ধা রাইচ প্রসেসিং মিলের মালিক সাদিকুল ইসলাম আমিন।

সাদিকুল ইসলাম আমিন জানান, চাল ব্যবসায়ী নূরুল ইসলাম মধুপুরের গোলাবাড়ী ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুস ছাত্তারের নিকট থেকে ২৪ বস্তা এবং বিভিন্ন জনের কাছ থেকে বাকী চাল ক্রয় করে মোট ৭১ বস্তা চাল তার মিলে প্রসেসিং করার জন্য এনে ছিলেন। চাল ব্যবসায়ী নূরুল ইসলাম জানান, জব্দ করা চাল তার কাছে ছাত্তার মেম্বার বিক্রি করেছেন।

এ ব্যাপারে মঙ্গলবার(৯জুন) রাতে মধুপুর উপজেলা খাদ্য পরিদর্শক আনিসুর রহমান বাদী হয়ে ধনবাড়ী থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামীরা হলেন গোলাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের ৩নং ওয়ার্ডের মাঝিরা গ্রামের আব্দুস সাত্তার এবং ভাইঘাটের চাল ব্যাবসায়ী মো: নূরুল ইসলাম।

মধুপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফা জহুরা জানান, ৭১ বস্তা চালের মধ্যে ২৪ বস্তা ফেয়ার প্রাইসের।বাকীটা ত্রান সহ অন্যান্য খাতের।ঘটনাস্হল ধনবাড়ী উপজেলাধীন হওয়ায় জব্দকৃত চাল ধনবাড়ী উপজেলা প্রশাসনের জিম্মায় দেয়া হয়। এঘটনায় ধনবাড়ী থানায় মামলা হয়েছে।

একটু জটিলতা থাকায় তদন্তে বেশী সময় লেগেছে। তিনি আরও জানান সরকারের দেয়া এ চাল নিয়ে কেও দুর্নিতি করলে তাকে ছাড় দেয়া হবে না। উল্লেখ্য, টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচী ও ত্রাণের ৭১ বস্তা সরকারী চাল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মধুপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফা জহুরা ধনবাড়ী উপজেলার ভাইঘাট বাঘিল রজনীগন্ধা রাইচ প্রসেসিং মিলে অভিযান চালিয়ে রোববার (০৭ জুন) রাতে জব্দ করেন। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।