ঠাকুরগাঁওয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও একজনের মৃত্যু; নতুন আক্রান্ত ১১ জন ! 

34
ঠাকুরগাঁওয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও একজনের মৃত্যু; নতুন আক্রান্ত ১১ জন ! ছবি-আলমগীর
সুপ্রভাত বগুড়া (ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি): ঠাকুরগাঁওয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে রংপুর কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক নারীর মৃত্যুর বিষয় নিশ্চিত করেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। মৃত নারীর বয়স ৬৫ বছর, তার বাসা সদর উপজেলার ভাউলার হাট নামক এলাকায়। তিনি রংপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২০ জুলাই মৃত্যুবরণ করেন। এ নিয়ে জেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা দাড়ালো ৬ জনে।
এদিকে আজ জেলায় নতুন করে ১১জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলায় রয়েছেন ৪জন, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় ৪জন এবং রাণীশংকৈলে রয়েছেন ৩জন। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ৩২০জন এবং আক্রান্তদের মধ্যে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হয়েছেন ২২১ জন।
শনিবার (২৫ জুলাই) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা: মাহফুজার রহমান সরকার।
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিস সুত্রে জানা যায়, সদর উপজেলায় আক্রান্ত চারজনের মধ্যে পৌরসভার গোবিন্দনগর এলাকায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫২ বছর বয়সী এক পুরুষ, পরিষদ পাড়ায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৯ বছর বয়সী এক যুবক, হাজীপাড়ায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫ বছর বয়সী অগ্রণী ব্যাংকের এক কর্মকর্তা ও আক্রান্ত হিসেবে সনাক্ত হয়েছেন সদর উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের ভাউলারহাট এলাকার ৬৫ বছর বয়সী মারা যাওয়া সেই নারী।
বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪জন। আক্রান্তদের মধ্যে রয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৫২ বছর বয়সী একজন মেডিকেল টেকনোলজিষ্ট (ইপিআই) ও একই অফিসের ৩১ বছর বয়সী এক নারী অফিস সহায়ক। এছাড়া আক্রান্ত হয়েছেন উপজেলার বড়বাড়ী এলাকার ৪৮ ও ৪৫ বছর বয়সী দুজন নারী-পুরুষ। তারা সম্পর্কে স্বামী-স্ত্রী।
এদিকে রাণীশংকৈল উপজেলার ক্ষুদ্র বাঁশবাড়ী এলাকায় আক্রান্ত হয়েছেন একই পরিবারের দুই ভাই ও এক বোনসহ ৩ জন। তাদের বয়স ১২, ২২ ও ২৮। তারা গত ২২ জুলাই রংপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া নারীর সন্তান। মায়ের সংস্পর্শে গিয়ে তারা করোনায় আক্রান্ত হন।
জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সুত্রে জানা যায়, আজকের রিপোর্টে করোনায় আক্রান্ত সনাক্ত হওয়া মৃত নারী গত ২০ জুলাই ঠাকুরগাঁওয়ে নমুনা দিয়েই রংপুরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভর্তি হন। সেখানে তার শরীরে করোনার উপসর্গ থাকায় রংপুর কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিলো। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওইদিন রাতেই তিনি মৃত্যুবরণ করেন।
স্বাস্থ্যবিভাগ আরও জানায় গত ২৪ ঘন্টায় জেলা থেকে সন্দেহাতীত  ৬জন ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য দিনাজপুরে প্রেরণ করা হয়েছে।