করোনায় সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

113
সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী। ছবি-সংগ্রহ

সুপ্রভাত বগুড়া ডেস্ক: মার্চের শেষ দিক থেকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশে সাধারণ ছুটি দিয়েছিল সরকার। এবার সাধারণ ছুটি বাড়িয়ে সবকিছু ধীরে ধীরে স্বাভাবিক করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

এর মধ্যে যাতে ভাইরাস নতুন করে ছড়িয়ে না পড়ে এ জন্য সরকার কিছু পরিকল্পনা নিয়েছে। এই পরিকল্পনার আওতায় সারা দেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে বলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন।

সাধারণ ছুটির পর সীমিত পরিসরে অফিস খোলার দ্বিতীয় দিন আজ সোমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক বৈঠক শেষে তিনি একথা বলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘করোনাভাইরাস সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার অনুযায়ী সারা দেশকে রেড, গ্রিন ও ইয়োলো জোনে ভাগ করা হবে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরামর্শে এই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা একটা প্ল্যান তৈরি করব। প্ল্যান নীতিগতভাবে এখানে (সভায়) আলোচনা হয়ে গেছে।

আমরা এখন সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা দিয়ে দেব। তখন মেয়র, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় এবং আমরাও (স্বাস্থ্য) থাকব। সবাই মিলে বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করব।’

কী পরিকল্পনা হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাদের পরিকল্পনা এখন পর্যন্ত এটাই। এখন বিশেষজ্ঞরা তারা কীভাবে বাস্তবায়ন করবে বা জোনিং করবে সেটা তারা জানে।’

এক প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এখনো জোন করা হয়নি। যখন করা হবে তখন জানতে পারবেন। ঢাকা, নারায়াণগঞ্জ, গাজীপুর ও চট্টগ্রাম সবচেয়ে বেশি সংক্রমিত হয়েছে।

যদি কোনো জোন রেড হয়ে থাকে সেগুলোকে রেড করা হবে। বাংলাদেশের অধিকাংশ জেলা ও উপজেলা এখনো অনেকাংশে ভালো আছে। আমরা সেটা ভালো রাখতে চাই। ভালো রাখার জন্য আজকে এই সভা।’