দর্জি মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্যের বিরুদ্ধে দর্জি শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতিবাদ

107
দর্জি মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্যের বিরুদ্ধে দর্জি শ্রমিক ইউনিয়নের প্রতিবাদ। -প্রতিবেদক

নিজস্ব প্রতিবেদক: বগুড়া জেলা দর্জি মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেনের বক্তব্যের প্রেক্ষিতে গত ১৮ এপ্রিল দৈনিক করতোয়ায় প্রকাশিত প্রতিবেদনের প্রতিবাদ করেছেন বগুড়–া জেলা দর্জি শ্রমিক ইউনিয়ন। গতকাল বুধবার বগুড়া প্রেসকাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ প্রতিবাদ করেন জেলা দর্জি শ্রমিক ইউনিয়ন।

সংবাদ সম্মেলনে বগুড়া জেলা দর্জি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি কাজি মো: সোবহান বলেন, দর্জি মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেনের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে, ‘দর্জি শ্রমিকের মজুরী ২০২২ সালে শতকরা ১৫ ভাগ বৃদ্ধি করা হয়েছে। পরবর্তী ২ বছর আরও ২ শতাংশ করে বাড়িয়ে আগামি ৫ বছরের জন্য মজুরী বাড়ানো স্থগিত থাকবে’। উক্ত তথ্যটি সঠিক নয়।

মূলত দর্জি শ্রমিক ইউনিয়নের প্রধান উপদেষ্টা রফিনেওয়াজ খান রবিনের মধ্যস্থতায় শ্রমিক ও মালিক নেতৃবৃন্দের সাথে পত্র যোগাযোগসহ দ্বিপাকি আলোচনা সাপেে শ্রমিকের মজুরী ১৫ ভাগ বৃদ্ধি করা হয়েছে। ২০২৩ ও ২০২৪ সালে আবারও ২ শতাংশ হারে বৃদ্ধির ল্েয ৩ বছরের জন্য সিদ্ধান্ত মৌখিকভাবে চূড়ান্ত করা হয়েছে। যা এখনও বহাল রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, করোনার সময়ে দর্জি শ্রমিকদের কোন মজুরী বৃদ্ধি করা হয়নি। বর্তমানে সকল নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রীর মূল্য বৃদ্ধি হওয়ায় দর্জি শ্রমিকের মজুরী বৃদ্ধি একটি যুক্তিযুক্ত বিষয়। তাই মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মূলত ৫ বছরের জন্য মূল্য বৃদ্ধির কথা বলেছেন, সেটি ঠিক নয়। প্রকৃতপে চলতি বছর ১৫ ভাগ এবং পরবর্তী আরও ২ বছর ২ভাগ করে বাড়ানোর বিষয়ে চুক্তি হয়েছে।

তার এই মিথ্যে তথ্য প্রদানের জন্য তীব্র নিন্দা জানাই। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা দর্জি শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস আলম, সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম শাহ্, বারেক এরশাদ, শ্রমিক নেতা বাপ্পি হাসান, রাশেদুল ইসলাম প্রমুখ।