নওগাঁর রাণীনগরে বাকপ্রতিবন্ধি বিধবাকে ব্যবহার করে কৌশলে জমি দখলের চেষ্টা!

96

সুপ্রভাত বগুড়া (নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি): নওগাঁর রাণীনগরে ৩৭ বছর আগে ক্রয়কৃত সম্পত্তির উপরে জোর জবরদস্তি করে চারটি খুটির উপরে কয়েকটি টিন দিয়ে বাকপ্রতিবন্ধি বিধবাকে ব্যাবহার করে ভাড়াটিয়া লোকজন দিয়ে অভিনব কৌশলে ধান-কাটা মাড়াইয়ের খলিয়ান দখলে নেওয়ার চেষ্টা।এমনই অভিযোগ করেছেন উপজেলার রঞ্জনিয়া গ্রামের আফতাব আলি। 

আফতাব আলি জানান, আমার প্রতিবেশি হাতেম আলি ও কাসেম আলি দুই ভাই রঞ্জনিয়া মৌজায় এস,এ-৬৯,আর এস-৩১ খতিয়ানের সাবেক ২৫৭ হাল ২৪৫ নং দাগে তাদের মালিকানা সুত্রে ১৯৮৪ ইং সালে হাতেম আলির ভাই কাসেম আলি আমার কাছে নয় শতক সম্পত্তি বিক্রয় করে এবং কাসেম আলি আমাকে তার বিক্রয়কৃত সম্পত্তি বুঝে দিয়ে গ্রাম ছেড়ে অন্যত্র যেয়ে বসবাস করছেন ।

উক্ত ক্রয়কৃত সম্পত্তি সে সময় ধানি থাকলেও আমি মাটি কেটে দীর্ঘদিন যাবত খলিয়ান হিসাবে ব্যবহার করে আসছি। দীর্ঘ ৩৭ বছর পরে হটাৎ করেই হাতেম আলির ছেলে মন্টু ও গোলাপ তার বাকপ্রতিবন্ধি ও বিধবা মাকে সামনে রেখে ভাড়াটিয়া লোকজন দিয়ে জোর জবরদস্তি করে আমার ব্যবহৃত খলিয়ানের উপরে চারটি খুটি ও তার উপরে কয়েকটি টিন দিয়ে দখলে নেওয়ার চেষ্টা করছে এবং হাতেম আলির ছেলেরা তাদের ভাড়াটিয়া লোক দিয়ে আমার সন্তান সহ আমাকে বিভিন্ন ভাবে ভয়ভিতি দেখিয়ে আসছে।

যে কোন সময় উক্ত খলিয়ানের উপরে ঘর করার পায়তারা করছে ।এ বিষয়ে অভিযুক্ত গোলাপের স্ত্রী জুলেখা বিবি বলেন, এতোদিন আমরা দুর্বল ছিলাম সে জন্য জমিতে যেতে পারিনাই আমার শশুর নামে রেকর্ড হয়েছে সে জন্য আমরা জমিতে ঘর করবো।

এ বিষয়ে রাণীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জহুরুল হক জানান, অন্যের জমিতে অনাধিকার প্রবেশ করে দখলের চেষ্টায় আফতাব আলি বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। তাছাড়া ও আইনশৃংলার অবনতি যেন না হয় সে জন্য নজর রাখছি।