নওগাঁ বদলগাঁছী করোনায় কপাল পুড়েছে সাউন্ড সিস্টেম ও ডেকোরেটর ব্যবসায়ীদের

36

সুপ্রভাত বগুড়া (বুলবুল আহম্মেদ ( বুলু) নওগাঁ বদলগাঁছী, প্রতিনিধি): বর্তমান করোনা ভাইরাসের বিষাদময় পরিস্থিতিতে বন্ধ রয়েছে দেশের প্রায় সকল প্রকার সরকারি, বে-সরকারী সামাজিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠান। এতে পেশা টিকিয়ে রাখতে হিমশিম খাচ্ছে বদলগাঁছী উপজেলার মিঠাপুর বাজারে সাউন্ড সিস্টেম ও ডেকোরেটর ব্যবসায়ীরা। গতকাল শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বিভিন্ন বাজার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, অধিকাংশ দোকান খোলা থাকলেও নেই কাজের ব্যস্ততা।

কাজ বিহীন সকাল আর সন্ধ্যা কাটে। দিন শেষে হিসাবের খাতা শূন্য। একদিকে বন্ধ রয়েছে আয়, অন্যদিকে বাড়ছে ব্যয়। শেষ হয়ে যাচ্ছে জমানো সঞ্চয়। ফলে সংকটময় দিন পাড় করছেন এ ব্যবসার সঙ্গে জড়িত প্রায় দেড় শতাধিক পরিবার। উপজেলায় প্রায় অর্ধ শতাধিক সাউন্ড সিস্টেম ও ডেকোরেটর ব্যবসায়ীসহ শতাধিক শ্রমিক এ কাজের সাথে জড়িত রয়েছেন।

দীর্ঘদিন ধরে রোজগার না থাকায় অসহায় অবস্থায় দিন যাপন করছেন তারা। সরকারিভাবে একবার ত্রাণ দিলেও নামমাত্র পায়নি এই ব্যবসায়ীরা। তাই সরকারি ভাবে আর্থিক সহায়তার আবেদন জানিয়েছেন উপজেলার সাউন্ড সিস্টেম ও ডেকোরেটর ব্যবসায়ীরা।বদলগাঁছী উপজেলা মিঠাপুর বাজারের সাউন্ড সিস্টেম ব্যবসায়ী মোঃ হাফিজার রহমান ডিজিটাল সাউন্ড সিস্টেমের মোঃ মতিউর রহমান ( মতি) মাইক সার্ভিস তারা সকলেই জানান, করোনাকালীন লকডাউনে আমাদের দোকান পুরোপুরিভাবে বন্ধ ছিলো।

বর্তমানে দোকান খুললেও করোনার কারণে সকল অনুষ্ঠানাদি বন্ধ রয়েছে। আমাদের পরিবার এই ব্যবসার উপর চলে। তাছাড়া আমাদের দোকানে ৫ থেকে ৭ জন করে কর্মচারী আছে। তাদেরও বেতন দিতে পারছিনা। দোকানমালিক কর্মচারীসহ সকলে মিলে পরিবার চালাতে হিমশিম খাচ্ছি। সংকটময় অবস্থায় স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোন প্রকার সহায়তা পাইনি। তাই সরকারের কাছে সহযোগিতা চাই।