নিজেকে আল্লাহর রাস্তায় ছেড়ে দিলাম, করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃতদেহ গোসল করাবো আমি !!

170


সুপ্রভাত বগুড়া (এ,কে,দিপংকর, বগুড়া সদর উপজেলা প্রতিনিধি): নাম তার সুলতানা পারভিন। ধর্মপরায়ন এই মহিলা ব্যক্তিগত জীবনে দুই সন্তানের জননী। বাড়ি বগুড়া শহরের ফুলবাড়ি এলাকায়। তিনি নিজের ভেতরে পোষণ করেছেন এক ব্যতিক্রমী ইচ্ছা। আর তা প্রকাশও করলেন আদম্য সাহস নিয়ে।

সারা বিশ্বেজুড়ে এখন করোনার মহামারিতে লাশের মিছিল, দেশেও এখন দিনদিন বাড়ছে মৃত্যু আর সংক্রমণের সংখ্যাও। কিন্তু, সবচেয়ে হৃদয়বিদারক ঘটনার অবতারনা ঘটছে এই লাশের সৎকাজ করতে গিয়ে।

সংক্রমণের ভয়ে ভাই-বোন, আত্মীয়-স্বজন থেকে শুরু করে কাউকেই পাওয়া যায় না লাশের ধারে কাছে। করোনা ভাইরাসের কারণে যেখানে মাকে জঙ্গলে ফেলে রাখা হচ্ছে, যেখানে স্বজনরাও ধরছে না বা গোসল করাচ্ছে না প্রিয়জনের লাশ।

সেখানে বগুড়ার ফুলবাড়ি এলাকার ধর্মপ্রাণ এই ২ সন্তানের জননী নিজেকে ছেড়ে দিয়েছেন আল্লাহর রাস্তায়। গোসল করাতে চান করোনা ভাইরাসে মৃত লাশের। হতে চান করোনা যোদ্ধা।

তিনি আমাদের এই প্রতিনিধিকে বলেন: করোনা ভাইরাসে মৃতদেহের শেষকৃত্যের কাজ যেসব সংগঠন করছে তাদের সাথে যোগাযোগ করিয়ে দিতে। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে বিনাদ্বিধায় ও স্বেচ্ছায় তিনি এই কাজ করার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

যদি কোথাও করোনায় মৃত রোগীর গোসল করানো নিয়ে এধরনের পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় তবে তাকে যেন জানানো হয়, এমন আবেদনই করেছেন তিনি। তিনি উল্ল্যেখ করেন, বগুড়া শহরের ফুলবাড়ি মধ্যপাড়া, কাউন্সিলর অফিসের পাশে সুলতানা পারভিন বলে খোজ করলেই তাকে পাওয়া যাবে।

একবার হৃদয় দিয়ে অনুভব করুন, যেখানে মানুষ করোনা আতঙ্কে ভীত, চিন্তিত, যেখানে করোনা রোগীর লাশ নিয়ে ঘটেছে নির্মম ইতিহাস, সেখানে একজন মহিলা হিসেবে তার এই সাহস সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। বি: দ্র: (সম্মানিত পাঠক, তার ছবি প্রকাশ করাটা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন)।