পাইকগাছায় ১০ লক্ষ টাকা নেয়ার জন্য ঘুষ দিয়ে করোনা পরীক্ষা পজেটিভের অভিযোগ !

83
পাইকগাছায় ১০ লক্ষ টাকা নেয়ার জন্য ঘুষ দিয়ে করোনা পরীক্ষা পজেটিভের অভিযোগ ! ছবি-প্রতিবেদক

পাইকগাছায় উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ডাঃ অরুপের করোনা পজেটিভ, আইসোসলশনে; অথচ চিকিৎসক বাজারে ঘোরাফেরায় এলাকায় আতংক !

সুপ্রভাত বগুড়া (নিজস্ব প্রতিবেদক): পাইকগাছায় ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্রের চিকিৎসক করোনা পজেটিভ। কেন্দ্রটি বন্ধ ঘোষনা,চিকিসক আইসসোলশনে,অন্যান্য কর্মচারীরা হোম কোয়ারেন্টাইনে। চিকিৎসক বাজারে ঘোরাফেরায় এলাকায় আতংক বিরাজ করছে।

চিকিৎসক ১০ লক্ষ টাকা পাওয়ার আসায় ঘুষ দিয়ে করোনা পজেটিভ করে নিয়ে এসেছে বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

জানাযায়, পাইকগাছা উপজেলার আগড়ঘাটা বাজারে অবস্থিত কপিলমুনি ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি। কেন্দ্রে প্রতিদিন শতাধিক রোগী যাতায়াত করে থাকে। উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসক অরুপ রতন অধিকারী এসব মানুষকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে থাকেন।

অরুপ রতন অধিকারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর মাধ্যমে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার নমুনা ১০ দিন পূর্বে প্রদান করেন। রবিবার রাত ৯ টায় নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট কোভিড- ১৯ পজেটিভ আসে।

সোমবার ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি বন্ধ ঘোষনা করে। ডাঃ অরুপ রতন অধিকারীকে আইসোসলশনে ও অন্যান্য কর্মচারীদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে । ডাঃ অরুপ রতন অধিকারী ও অন্যান্য কর্মচারীরা সোমবার সন্ধ্যায় ও মঙ্গলবার সকালে আগড়ঘাটা বাজারে ঘোরা ফেরা করে বলে এলাকায় করোনা আতংক ছড়িয়ে পড়ে।

কপিলমুনি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কওছার আলী জোয়াদ্দার জানান, বিষয়টি সংশ্লিষ্ট উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। ডাঃ অরুপ রতন মোবাইলে জানান, আমি আইসোসলশনে রয়েছি।

অন্যান্য কর্মচারীরা হোম কোয়ারেন্টাইনে আছে। হাসপাতালটি বন্ধ রয়েছে। আমি বাজারে ঘোরা ফেরা করি নাই। উপজেলার স্বাস্থ্য ও প:প: কর্মকর্তা ডাঃ নীতিশ চন্দ্র গোলদার জানান, হাসপাতালের ডাক্তার ও কর্মচারীরা আইসোসলশনে এবং হোম কোয়ারেন্টাইনে আছে। হাসপাতালটি বন্ধ রয়েছে।

নোটিশ টানিয়ে দেয়া হবে। আগড়ঘাটা বাজারের ব্যবসায়ী বুলবুল আহম্মেদ,আব্দুল জব্বার বাবুল,মিঠু,শফিকুল ইসলাম সহ শতাধিক লোক অভিযোগ করে বলেন, ডাঃ অরুপ রতন অধিকারী সম্পূর্ন একজন সুস্থ্য লোক।

সরকার থেকে ১০ লক্ষ টাকা নেয়ার জন্য ঘুষ দিয়ে তার করোনা পরীক্ষা পজেটিভ করে নিয়ে এসেছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।