প্রথম অন-স্ক্রিনেই প্রসংশায় ভাসছেন মুসলিম সুপারহিরো

63
প্রথম অন-স্ক্রিনেই প্রসংশায় ভাসছেন মুসলিম সুপারহিরো

‘পপ সংস্কৃতির ইতিহাস’ এর একটি ‘আনন্দময়’ অংশ হিসেবে ডিজনিতে প্রথম অন-স্ক্রিন হলো মুসলিম সুপারহিরোর গল্প। মুক্তির পর পরই ‘মিস মার্ভেল’র মুক্তিকে স্বাগত জানিয়েছেন সমালোচকরা। যারা দেখেছেন তারাই প্রশংসায় পঞ্চমুখ। সিরিজটি অ্যাভেঞ্জার্সের কমিক বইয়ের ফ্যানগার্ল কমলা খানকে কেন্দ্র করে, যেটিতে অভিনয় করেছেন পাকিস্তানি-কানাডিয়ান নবাগত ইমান ভেলানি।

তিনি পরাশক্তি অর্জন না করা পর্যন্ত ফিট হওয়ার জন্য সংগ্রাম করছেন, ‘মিস মার্ভেল’ হয়ে উঠেছেন। সিরিজটি যেন মার্ভেল সুপার হিরোর জগতে একটি আনন্দময় অংশ এমনটাই বলেছেন সমালোচকরা। মার্ভেল সুপারহিরোরা ১৯৭০ এর দশক থেকে কমিক বইয়ের পাতা থেকে এবং টিভি এবং চলচ্চিত্রের পর্দায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে, কিন্তু সম্প্রতি এর চরিত্রগুলিকে বৈচিত্র্যময় করার চেষ্টা করা হয়েছে। আর সেই চেষ্টার ই ফল কমলার চরিত্রটি।

সুপারহিরো দুনিয়ায় শ্যামলা মেয়ের আগমণে নতুনত্ব এলো বলে মনে করেন সমালোচকরা। একজন তরুণ অভিনেত্রী হিসেবে সিনিয়র অভিনেতাদের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চলতে পারবেন বলে মনে করেন তারা। সমালোচকদের কেউ কেউ বলছেন ছয়-অংশের ডিজনি সংগ্রহের প্রস্তাবিত উভয় পর্বই ছিল আবেদন, বুদ্ধি, উষ্ণতা এবং বাস্তবতায় পূর্ণ।

এদিকে সংবাদপত্রের টেলিভিশন সমালোচক লুসি ম্যাঙ্গান লিখেছেন: ‘সাধারণত আপনি একজন তরুণ অভিনেতার জন্য ভয় পাবেন, কিন্তু ভেলানি ভায়োলার জন্য জন্মগ্রহণ করেছেন বলে মনে হয়।’ এর মধ্য দিয়েই তারকা বনে গেলেন পাকিস্তান-কানাডিয়ান বংশদ্ভুত ইমান ভেলানি।

এ কমিক্সে কমলার আকার পরিবর্তন করার ক্ষমতা রয়েছে। সে তার শরীরকে মূর্তির মতো বড় করতে পারে এবং নিজেকে ছোট আকারে সঙ্কুচিত করতে পারে। মিস মার্ভেলে অভিনয় করেছেন ফারহান আখতার, ম্যাট লিন্টজ, ইয়াসমিন ফ্লেচার, জেনোবিয়া শ্রফ এবং আরও অনেকে।৮ জুন ২০২২ এ ভারতে ডিজনি প্লাস হটস্টারে প্রিমিয়ার হয় মিস মার্ভেল। সূত্র: বিবিসি নিউজ