প্রবাসীর স্ত্রীকে হাত-পা বেঁধে শ্বাসরোধে হত্যা

4
প্রবাসীর স্ত্রীকে হাত-পা বেঁধে শ্বাসরোধে হত্যা

গাজীপুরের কাপাসিয়ায় দক্ষিণ কোরিয়া প্রবাসীর স্ত্রীকে হাত-পা বেঁধে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।
মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) সকালে জেলার কাপাসিয়া উপজেলার সিংহশ্রী ইউনিয়নের পূর্ব ভিটিপাড়া গ্রামের দক্ষিণ কোরিয়া প্রবাসী মোশাররফ হোসেনের বাড়ি থেকে ওই নারীর হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত প্রবাসীর স্ত্রী গৃহবধূ শাহনাজ বেগম শিমু (৩৮) গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার সিংহশ্রী ইউনিয়নের পূর্ব ভিটিপাড়া গ্রামের মোশারফ হোসেনের স্ত্রী। ওই দম্পতির কোন সন্তানাদি নেই, তিনি একাই ওই বাড়িতে বসবাস করতেন।

Pop Ads

নিহতের স্বজনেরা জানান, সোমবার (১ এপ্রিল) রাতে একাই তিনি ওই ঘরে ঘুমাতে যান। মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) সকাল ৯টার দিকে তিনি ঘুম থেকে না উঠায় স্বজনেরা ঘরের ভেতরে খাটের ওপরে দেহ রশি ও গামছা দিয়ে বাঁধা অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়।

আরও পড়ুন: স্বামীকে নিয়েই পরকীয়া প্রেমিক আরিফকে শ্বাসরোধে হত্যা করে ফাতেমা

ধারণা করা হচ্ছে, সোমবার দিবাগত রাতে যে কোন সময় দুর্বৃত্তরা রান্না ঘরের টিন কেটে প্রবাসীর স্ত্রীর কক্ষে প্রবেশ করে। পরে তার হাত-পা রশি দিয়ে বেঁধে মুখে গামছা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ফেলে চলে যায়। সকাল ৯টার দিকে তিনি ঘুম থেকে না উঠায় পরিবারের অন্য সদস্যরা খোঁজ নিতে গেলে হাত-পা বাঁধা নিথর দেহ খাটের ওপর পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়া হয়।

কাপাসিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর মিয়া জানান, ওই নারীর মুখের দুটি দাঁত ভেঙে গেছে, হত্যার সময় ধস্তাধস্তি করতে গিয়ে তার দাঁত ভেঙে যেতে পারে। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। ঘরের আসবাবপত্র, আলমারির মালামাল ছড়ানো ছিটানো অবস্থায় পাওয়া গেছে, তবে চুরি বা ডাকাতির কোন ঘটনা কি তা তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ইতোমধ্যে হত্যার রহস্য উদঘাটনে পুলিশের একাধিক টিম কাজ শুরু করেছে।