ফেনীর সোনাগাজীতে প্রাথমিক শিক্ষার বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটবে চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন মাহমুদ লিপটন

105
ফেনীর সোনাগাজীতে প্রাথমিক শিক্ষার বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটবে চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন মাহমুদ লিপটন। ছবি-এমদাদ
সুপ্রভাত বগুড়া (এমদাদ খান, ফেনী): ফেনী বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি সোনাগাজী শাখার উদ্যোগে উপজেলায় নব নিয়োগ প্রাপ্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষকদের এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সোনাগাজী উপজেলা চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন মাহমুদ লিপটন, বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জোবেদা নাহার (মিলি), প্রাথমিক সহকারি শিক্ষা অফিসার ওয়াহিদুর রহমান, চর-মজলিশপুর ইউপি চেয়ারম্যান এম এ হোসেন, চরচান্দিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন (মিলন), নবাবপুর ইউপি চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন।
অনান্য অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সোনাগাজী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল মোতালেব (রবিন), উপজেলা যুবলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক মোরশেদুল হক (মেনন), মতিগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মাহফুজ আহমদ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার ইসমাইল হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল জলিল প্রমুখ। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি সোনাগাজী উপজেলা শাখার সভাপতি জনাব এ কে এম শরিয়ত উল্ল্যাহ।
সকাল ১১টায় মতিগঞ্জস্থ সমিতি নিজস্ব ভবনের জাতীয় সংগীত ও পতাকা উত্তোলনের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানে কর্মসূচি শুরু হয়। পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াত ও গীতা পাঠ করা হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চলনা করেন শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সুনিল রায় ও সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হাসান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জহির উদ্দিন মাহমুদ লিপটন বলেন প্রাথমিক শিক্ষার গুনগত মানউন্নয়ন, করোনা কালীন প্রাথমিক শিক্ষা ও করনা পরবর্তীতে শিক্ষকদের করনীয়, শিক্ষক সমিতি ভবনের অবকাঠামোগত উন্নয়ন, সকল শিক্ষকদের একই ছাদের নিচে আনতে নির্বাচনের ব্যাবস্থা, নবীন শিক্ষকদের মেধা ও সৃজনশীলতার সর্বোচ্চ ব্যাবহার ইত্যাদি বিষয়ে দিক নির্দেশনা দেন। নবাগত শিক্ষকদের মধ্যে বক্তব্য ও অনুভূতি ব্যাক্ত করেন সরকারি শিক্ষক আজগর হোসেন ও প্রিয়াংকা কর।
প্রাথমিক শিক্ষার উন্নয়নে তাদের সর্বোচ্চ চেস্টা, মেধা ও পরিশ্রম দিয়ে যাবেন বলে আশ্বস্ত করেন। সভাপতি এ কে এম শরিয়ত উল্ল্যাহ আগত অতিথিদের মাঝে শিক্ষকদের কল্যানে গঠিত ঐতিহ্যবাহী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির বিভিন্ন ইতিহাস তোলে ধরেন। তিনি সকল শিক্ষকদের একমাত্র মিলনস্থল উপজেলা শিক্ষক সমিতি ভবনটি অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান এর দৃষ্টি আকর্ষন করেন।