বগুড়ায় প্রতারক লক্ষণের বিরুদ্ধে স্বাক্ষী দেয়ায় স্বাক্ষীর উপর হামলা তৎপর মামলা

93
বগুড়ায় প্রতারক লক্ষণের বিরুদ্ধে স্বাক্ষী দেয়ায় স্বাক্ষীর উপর হামলা তৎপর মামলা

গাবতলী প্রতিনিধি: বগুড়া গাবতলী উপজেলার চকসেকেন্দার গ্রামের মৃতঃ মনি চন্দ্রের ছেলে নব চন্দ্র (সূর্য্য) বাদী হয়ে শ্রী লক্ষণ চন্দ্র সরকারগং এর বিরুদ্ধে ১৭ই এপ্রিল-২২ইং তারিখ রবিবার বিবাদী করে বগুড়া জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফৌজদারী দন্ড বিধির ১০৭/১১৭ ধারায় ১৯৭/২২ (গাবঃ) মামলা দায়ের করে।

বিজ্ঞ আদালতের বিচারক খালেদ বিন মুনসুর শুনানি শেষে বিবাদীগনের বিরুদ্ধে শোকজ সমনের আদেশ প্রদান করে। উক্ত আসামীগন লক্ষণ চন্দ্র সরকার,পিতা-মৃতঃ কালিপদ,ফটিক চন্দ্র শীল,পিতা-মৃতঃ গুরুপদ শীল,বিমল চন্দ্র শীল,পিতা-মৃতঃ কালিপদ,কুশু চন্দ্র শীল,পিতা-মৃতঃ মণি চন্দ্র,রনজিৎ চন্দ্র শীল, পিতা-ধীরেন চন্দ্র,বিকাশ চন্দ্র শীল,পিতা-বিমল চন্দ্র,সুজন চন্দ্র সাহা,পিতা-মৃতঃ গৌড় সাহা সকলে চকসেকেন্দার গ্রামের বগুড়া গাবতলী উপজেলার।

মামলা সূত্রে জানা যায় যে,বগুড়া গাবতলী উপজেলার গুড়টুপ নগর গ্রামের মৃতঃ আমজাদ প্রাং এর ছেলে মোঃ তাজুল ইসলাম বাদী হয়ে প্রতারনা মামলায় শ্রী লক্ষণ চন্দ্র সরকারকে গত ০৬ই এপ্রিল-২২ইং তারিখ বুধবার আসামী করে বগুড়া জেলা ম্যাজিস্ট্রেট গাবতলী থানা আমলী আদালতে দন্ড বিধির ৪০৬/৪২০ ধারায় ১০৮ সি/২২ (গাবঃ) মামলা দায়ের করে।

উক্ত মামলায় বাদী নব চন্দ্র (সূর্য্য) ০১নং স্বাক্ষী হওয়ার কারণে লক্ষণ চন্দ্র সরকার গং যোগসাজশের মাধ্যমে ঘটনার তারিখ ও সময়ে বাদীকে হত্যার উদ্দেশ্য দেশীয় ধারালো অস্ত্র-সস্ত্র সহ লাঠি-সোড়া নিয়ে অতর্কিত ভাবে হামলা চালায়। এছাড়াও বিবাদীগন আরো বলে যে, স্বাক্ষীদের সহ বাদীকে খুন-জখম করে বাড়ি ঘরে আগুন লাগিয়ে উচ্ছেদ করবে।

এমনকি মিথ্যা মামলা-মোকদ্দমা দিয়ে শহরের মাস্তান বাহিনী দ্বারা জীবনের মনে শেষ করে ফেলবে বলে হুমকি প্রদান করে চলে যায়। তাই বাদী আর কোন উপায়ন্ত না পেয়ে বাধ্য হয়ে আইন অমান্যকারী বিবাদীগন শান্তি-শৃঙ্খলা ভঙ্গকারী,টাউট, প্রতারক,এবং সস্ত্রাসী টাইপের উশৃংখল ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অত্র আদালতে মামলা দায়ের করতে বাধ্য হয় মর্মে জানা যায়।