বগুড়ার আদমদীঘিতে ডিলারের গুদাম থেকে ২৬৪ বস্তা চাল জব্দ করেছে ভ্রাম্যমান আদালত

118
বগুড়ার আদমদীঘিতে ডিলারের গুদাম থেকে ২৬৪ বস্তা চাল জব্দ করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। ছবি-শিমুল

সুপ্রভাত বগুড়া (শিমুল  হাসান,আদমদিঘী, বগুড়া প্রতিনিধি): বগুড়ার আদমদীঘিতে সরকারি খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ডিলার বেলাল হোসেনের গুদাম থেকে ২৬৪বস্তা চাল জব্দ করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। বুধবার সকালে অভিযান চালিয়ে চালগুলো জব্দ করা হয় এবং ডিলার বেলাল হোসেন (৫৫) বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

তিনি পূর্ব ছাতনীর মৃত সোলায়মান হোসেনের ছেলে। জানাগেছে, উপজেলার সান্তাহার ইউনিয়নের হেলালিয়াহাট এলাকায় সরকারি খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ডিলার বেলাল হোসেন পার্শ্ববর্তী নওগাঁর চন্ডিপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও ব্যবসায়ী সাহার আলীর কাছে দুস্থদের জন্য বরাদ্দকৃত চাল বিক্রি করে দেন। ভোর রাতে এসব চাল গুদাম থেকে অটোরিক্সাযোগে পাচারের সময় স্থানিয় জনতার হাতে ধরা খায়।

এসময় তারা চালভর্তি একটি অটোরিক্সাসহ ২জন চালককে আটক করতে সক্ষম হলেও ডিলার বেলাল হোসেন কৌশলে পালিয়ে যায়। বেলা সাড়ে ১১টায় সান্তাহার ওসি এলএসডির কৃষ্ণ কাঞ্চন, পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক আব্দুল ওয়াদুদ ও ইউপি চেয়ারম্যান এরশাদুল হকের উপস্থিতিতে গুদামে তল্লাশি চালিয়ে ৫০কেজি ওজনের ৩০বস্তা ও ৩০ কেজি ওজনের ২৩৪ বস্তা মিলে সর্বমোট ২৬৪বস্তা চাল জব্দ করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাহবুবা হক।

অপরদিকে স্থানিয়দের অভিযোগ, ইউপি চেয়ারম্যান এরশাদুল হক টুলু অভিযুক্ত বেলাল হোসেনকে চাল ডিলারি কাজে সার্বিক সহযোগিতা করে থাকেন। সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেট মাহবুবা হক চাল জব্দের বিষয়টি নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের জানান, ডিলার বেলাল হোসেন পলাতক রয়েছে। তার বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।