বগুড়ার ভবানীপুরে রনক স্পিনিং মিলে আন্দোলনরত শ্রমিকদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ :পুলিশ সহ আহত-৯ !

127

সুপ্রভাত বগুড়া (মারুফ হাসান): বগুড়ার শেরপুর উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের ফকির তলায় গড়ে তোলা রনক স্পিনিং মিলে বেতন-ভাতা বৃদ্ধি সহ কয়েক দফা দাবিতে প্রায় ৫ শতাধিক আন্দোলনরত শ্রমিকদের সাথে পুলিশের ব্যপক সংঘর্ষ হয়েছে।

আজ (১৪ মে) ভোরে আন্দোলনরত শ্রমিকদের কাজে ফেরানোর আহবান জানালে তারা পুলিশের সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে।প্রথমে পুলিশ পিছু হটলেও পরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে ২ রাউন্ড ফাকা গুলি প্রদর্শন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জানা যায়,এসময় শেরপুর থানার ৩ পুলিশ ও রনক স্পিনিং মিলের নারীভ শ্রমিক সহ ৬ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। তারা শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। এই ঘটনায় শেরপুর থানার ২ প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ঘঁটনাস্থলে শেরপুর-ধুনটের উপ-পুলিশ সুপার গাজীউর রহমান ও শেরপুর থানার অফিস ইনচার্জ হুমায়ুন কবীরের নেতৃত্বে মালিক ও শ্রমিকের দিবপক্ষিয় বৈঠকে রনক স্পিনিং মিলের জিএম ও প্রডাকসন ম্যানেজারকে প্রত্যাহার করার মাধ্যমে শ্রমিকদের সকল দাবি দাওয়া মেনে হয়।

এরই প্রেক্ষিতে আজ (১৪ মে) বেলা ২টা থেকে সকল শ্রমিক কাজে যোগদান করবেন বলে ঘোষণা করেন পুলিশ কর্মকর্তা গাজীউর রহমান। এসময় অত্র কোম্পানির কর্পোরেট জিএম আব্দুল কাদের ঘোষণাকৃত সকল দাবি মেনে নিয়ে কোম্পানির পক্ষ থেকে ক্ষমা চেয়ে আহত শ্রমিকদের চিকিৎসা প্রদান সহ সকল দাবি পুরন করার ঘোষনা দিয়ে কর্মস্থলে যোগদানের দাবি জানান।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন শেরপুর থানর অসি হুমায়ন কবীর, অসি তদন্ত আবুল কালাম আজাদ, স্থানীয় চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, সাবেক চেয়ারম্যান জিএম মোস্তফা, কোম্পানির একাউন্ট ম্যানেজার আল-আমিন সহ এলাকার গন্যমান্নরা।