বগুড়ার শাজাহানপুরে ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ঘুষ নিয়েও প্রতিবন্ধীদের ভাতা কার্ড না দেয়ার অভিযোগ

374

সুপ্রভাত বগুড়া (গরম খবর): বগুড়ার শাজাহানপুরে আড়িয়া ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আজিজুল হকের বিরুদ্ধে ঘুষ নিয়েও প্রতিবন্ধীদের ভাতা কার্ড না দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার নয়মাইল জামালপুর গ্রামের ভুক্তভোগী কয়েকটি পরিবারের এমনটাই অভিযোগ ।

ইউপি সদস্য ঘুষ নেবার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, টাকাগুলো ফেরত দিবেন। জানা গেছে, শাজাহানপুর উপজেলার নয়মাইল জামালপুর গ্রামের আবদুস সাত্তারের শারীরিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী মেয়ের (২১) জন্য প্রতিবন্ধী কার্ড করে দিতে ইউপি সদস্য আজিজুল হকের শরণাপন্ন হন।

কার্ডের বিনিময় ইউপি সদস্য টাকা দাবি করেন। দরিদ্র সাত্তার দুদফায় ২ হাজার ৭০০ টাকা ঘুষ দেন। এরপরও তার মেয়েকে কার্ড দেয়া হয়নি। দিনমজুর ফজলুর পাঁচ বছরের শারীরিক প্রতিবন্ধী মেয়ে আছে। এ শিশুকে প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড করে দেবার নামে ইউপি সদস্য দুই হাজার টাকা নেন।

ট্রাকের হেলপার আরিফুর রহমানের চার বছরের শারীরিক প্রতিবন্ধী ছেলে রয়েছে। তাকেও ভাতা কার্ড করে দেয়ার নামে দুই হাজার টাকা নেয়া হয়। অভিযোগ প্রসঙ্গে ইউপি সদস্য আজিজুল হক প্রতিবন্ধী ভাতার কার্ড করে দেয়ার জন্য টাকা নেয়ার সত্যতা স্বীকার করেন।

তিনি বলেন, কার্ড করে দেয়ার জন্য টাকাগুলো আরেক জায়গায় দেয়া হলেও কাজ হয়নি। ভুক্তভোগীদের দিয়ে দিবেন বলে তিনি জানান।

এ প্রসঙ্গে শাজাহানপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহমুদা পারভীন জানান, এমন কোনো অভিযোগ তিনি পাননি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।