বগুড়ার ১১০ সাংস্কৃতিক কর্মীর মুখে হাসি ফোটালো বগুড়া অনুশীলন’৯৫

57

সুপ্রভাত বগুড়া (জনি শাখাওয়াত): করোনা ভাইরাসের এই দুর্যোগে বগুড়ার ১১০ জন সাংস্কৃতিক কর্মীর মুখে হাসি ফোটালো বগুড়া অনুশীলন’৯৫ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠি। ঈদ সামগ্রীগুলো পেয়ে সাংস্কৃতিক কর্মীরা আনন্দ প্রকাশ করেন। রোববার শহরের টিটু মিলনায়তনের সংগঠন কার্যালয় থেকে বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধনের পর বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেয়া হয় ঈদ উপহার।

বগুড়ার সুনামধারী এই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি প্রকৌশলী মনোয়ারুল ইসলামের নির্দেশনায় ও সাধারণ সম্পাদক লিপি প্রধানের সার্বিক তত্বাবধানে উপহার সামগ্রী তুলে দেয়া হয়। এই কাজে অনুশীলন’৯৫ এর সাংস্কৃতিক পরিবার এবং কিছু শুভাকাঙ্খির আর্থিক সহযোগিতা গ্রহণ করা হয়।

বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর টিপু সুলতান। এসময় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক আবু সাঈদ সিদ্দিকী, কাহালু থিয়েটারের সভাপতি আব্দুল হান্নান, বিশিষ্ট ব্যবসায়ি পরিমল প্রসাদ রাজ, বগুড়া ইয়ূথ কয়্যার সভাপতি লায়ন আতিকুর রহমান মিঠু।

জোটের কোষাধ্যক্ষ রবিউল আলম অশ্রæ, দপ্তর সম্পাদক এইচ আলিম, নির্বাহী সদস্য আসাদুর রহমান খোকন, অনুশীলন’৯৫ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠির সাধারণ সম্পাদক লিপি প্রধান, সংগঠনের উপদেষ্টা এবিএম জিয়াউল হক বাবলা, সহ সভাপতি সাজ্জাদ আলী, ফরিদুজ্জামান, সংগঠনের সক্রিয় সদস্য আতাউর রহমান, মিলন, আবু শাহেদ, ওয়ারেছ ভুট্ট, রাশেদুল হক এরিন্স, নজরুল ইসলাম প্রমুখ।


বগুড়া অনুশীলন’৯৫ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি প্রকৌশলী মনোয়ারুল ইসলাম। জানান,  সকলের সহযোগিতা নিয়ে এই কাজ প্রয়োজনে আগামী দিনেও করতে চাই। সাংস্কৃতিক কর্মীদের জন্য অনুশীলন’৯৫ সাংস্কৃতিক গোষ্ঠির সকল সদস্য বৃন্দ নিবেদিত হয়ে কাজ করতে সবসময় তৎপর হয়ে থাকবে।