বগুড়া আদমদীঘিতে সেচপাম্পের তারের সাথে জড়িয়ে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু; উত্তোজিত জনতার রাস্তা অবরোধ!

67
বগুড়া আদমদীঘিতে সেচপাম্পের তারের সাথে জড়িয়ে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু; উত্তোজিত জনতার রাস্তা অবরোধ!। ছবি-শিমুল

সুপ্রভাত বগুড়া (শিমুল হাসান , আদমদিঘী (বগুড়া) প্রতিনিধি): আমন ধান ক্ষেতে বাবার সাথে ঔষধ স্প্রে করতে গিয়ে সেচ পাম্পের তারের সাথে জড়িয়ে আবু তালহা নামের এক কলেজ ছাত্র ঘটনা স্থলে মারা গেছে। বাবা ছেলেকে বাঁচাতে না পেরে বিদ্যুতের সট খেয়ে হাত পুড়ে আহত হয়।

এঘটনায় গ্রামবাসী উত্তোজিত হয়ে বগুড়া-নওগাঁ মহাসড়ক ১ ঘন্টা ব্যপী অবরোধ করে রাখেন। ওসির হস্তেক্ষেপে উত্তেজিত গ্রামবাসী অবরোধ তুলে নেয়। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানাযায়, আদমদীঘির শিবপুর গ্রামের নজিবর রহমান ও তার ছেলে বগুড়া কলেজের ছাত্র আবু তালহা (১৮) গত মঙ্গলবার সকালে বাবার সাথে মাঠে যায় আমন ধানক্ষেতে ঔষধ স্প্রে করার জন্য।

একই গ্রামের মোস্তফা নামের এক ব্যাক্তি ঔ মাঠে ইরি মৌসুমে বাঁশের খুটি দিয়ে বিদ্যুতের সংযোগ নিয়ে সেচ দিয়ে আসছিল কিন্তু বর্ষা মৌসুমে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছন না করে রেখে দেন। ঔষধ স্প্রে করতে যাওয়া কলেজ ছাত্র আবু তালহা মোস্তফার সেচ পাম্পের বিদ্যুতের তারের সাথে জড়িয়ে ঘটনা স্থলে ছটপট করতে লাগে বাবা নজিবর রহমান দেখতে পেয়ে দৌড়ে ছেলেকে বাচাঁতে গেলে তারের সটে হাত পুরে ঘটনাস্থলে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে জ্ঞান ফিরে এলে দেখে তার ছেলে মারা গেছে।

এঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে উত্তেজিত গ্রামবাসী সেচ পাম্পের মালিকের বিচার দাবী জানিয়ে রাস্তা এক ঘন্টা অবরোধ করে রাখেন। থানা পুলিশ খবর পেয়ে ওসি ঘঠনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উত্তেজিত গ্রামবাসীকে শান্ত করে অবরোধ তুলে দেয় এবং পূর্বের মতো যানবাহন চলাচল করেন। মুহুর্তের মর্ধে দুপার্শ্বে শত শত যানবাহন আটকে পড়ে জনদূর্ভোগের সৃষ্টি হয়।

ওসি জালাল উদ্দীন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে এবং অবহেলা জর্নিত কারনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া সার্কেল কে এইচ এম এরশাদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলেন, বিদুতের তারের সাথে মৃত্যুর ঘটনায় আইগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।