বগুড়া সাতবেকী গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধ, হামলায় ৬০ বছরের বৃদ্ধা আহত!

210

সুপ্রভাত বগুড়া (খালেদ সিদ্দিকী): বগুড়া ধুনটে নিমগাছি ইউনিয়নের সাতবেকী গ্রামের মোঃ আব্দুর রহমান স্ত্রী মোছাঃ মােলঞ্চা খাতুন(৬০) কে গত ১৬/০৫/২০২০ ইং তারিখে আনুমানিক ২ ঘটিকার সময় তার প্রতিবেশী মোঃ আমজাদ হোসেন পিতা মোঃ উদ্দিন প্রাং এর জামাই সুদ ব্যবসায়ী হিসেবে পরিচিত , তার বাহিনীর লোকজন বেধড়ক মারধর করে।

পরে তাকে অজ্ঞান অবস্থায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের জরুরি বিভাগে ভর্তি করা হয়। মালেঞ্চা খাতুনের স্বামী দুদু জানান তার প্রতিবেশী আমজাদ ভুয়া দলিল সৃষ্টি করে ২.৫ শতাংশ জমি দাবি করে এ নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ তারা বিভিন্নভাবে তার বাড়ির জায়গা দখলের চেষ্টা করে। কিন্তু তিনি (দুদু) কখনো জমি বিক্রয় করেন নাই বা কাউকে লিখে দেন নাই।

ঘটনার দিন আমজাদের উঠানে ধান শুকানোর কাজ চলছিল। ধান শুকানোর পর ধান উড়ানোর কাজ শুরু করে তার (দুদু’র) ঘরের কানিতে এসে। এসময় আহত মোছাঃ মালেঞ্চা খাতুন ঘরে ছিল। ধান উড়ানোর ময়লা উড়ে ঘরে যাচ্ছিল বলে পাশে থাকা একটি টিনের ছাপড়া তার ঘরের কানেতে দিয়ে রাখে।

এটা দেখে মোঃ আমজাদ হোসেন তার জামাই বিটুল কে খবর দিয়ে নিয়ে আসে। খবর পেয়ে সুদখোর বিটল তার লোকজন নিয়ে এসে ৬০ বছর বয়সী বৃদ্ধা মোছাঃ মালেঞ্চা খাতুনকে মারার হুকুম দিলে শান্ত সহ আরো কতিপয় লোকজন তাকে বেধড়ক মারধর শুরু করে।

এ সময় শান্ত তার হাতে থাকা শাবল দিয়ে বৃদ্ধার পিঠে মুখে ও বুকে আঘাত করলে বৃদ্ধা অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। খবর পেয়ে মাঠে থাকার বৃদ্ধার স্বামী আবদুর রহমান দুদু বাড়িতে এসে দেখে পুলিশে দাঁড়িয়ে আছে।

এমতাবস্থায় আহত বৃদ্ধ মহিলাকে দ্রুত বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে ভর্তি করানো হয়। উক্ত সময় আহত মালেঞ্চার স্বামী দুদু পুলিশকে অভিযোগের কথা বললে, উপস্থিত উপসহকারী পুলিশ পরিদর্শক মোঃ ইউনুস খান জনি ঈদের পরে সে অভিযোগ দায়ের করতে বলেন।

একই বিষয়ে বিটুল এর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি, তার মুঠোফোনে কল করলে সেটাও বন্ধ রয়েছে ।