বগুড়ার মহাস্থানে জামিনে ছাড়া পেয়ে মাদক নিয়ে দ্বন্দ্বে আহত ২, আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ১ !

100
বগুড়ার মহাস্থানে জামিনে ছাড়া পেয়ে মাদক নিয়ে দ্বন্দ্বে আহত ২, আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ১ ! প্রতিকী-ছবি
সুপ্রভাত বগুড়া (অভিজিৎ বাপ্পী শিবগঞ্জ  প্রতিনিধি): বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার গড়মহাস্থান পাথরপট্রি শালবাগানে জামিনে ছাড়া পেয়েই মাদক খাওয়াকে কেন্দ্র করে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে লাঠিসোটা ও ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে মারপিটে মাথায় আঘাত আশঙ্কাজনক অবস্থায় ১জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় আহত হয়েছে আরও ১জন।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ৯টায়, মহাস্থান পাথরপট্রি শালবাগান সংলগ্ন কুখ্যাত মাদক ও পতিতা সম্রাজ্ঞী পারভিন আক্তার পারীর ২ বখাটে পুত্র পারভেজ(২০) ও রাসেল(১৮) বাড়ির পাশে গাঁজা সেবন করছিলেন। এসময় পাশের বাড়ির আনিছুর রহমানের পুত্র রাজু মিয়া (২৪) কে গাঁজা মিকচারের জন্য আলোয়া পাতা আনতে বলে। এতে রাজু অস্বীকৃতি জানালে পারভেজ ও রাসেল ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারপিট করতে থাকে।
এসময় তার পিতা আনিছুর রহমান (৫০) তাকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে পারভেজ ও রাসেল লাঠিসোটা ও ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে আনিছুর রহমানের মাথায় আঘাত করে। এতে আনিছুর রহমান মাটিতে লুটিয়ে পড়লে সন্ত্রাসী পারভেজ ও রাসেল পালিয়ে যায়।
পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহত আনিছুর রহমানকে রক্তাক্ত  অবস্থায় উদ্ধার করে শিবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। এব্যাপারে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলে আহতদের পরিবারসূত্রে জানা গেছে।
জানা যায়, গত (৪জুলাই) কুখ্যাত পতিতা সম্রাজ্ঞী পারীর বাড়িতে শিবগঞ্জ থানার পুলিশ অভিযান চালিয়ে ১ নারী সহ ৩ খদ্দের ও  পারীর পুত্র পারভেজ কে আটক করে মামলা দায়ের করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়। পারভেজ জেলহাজত থেকে জামিনমুক্ত হয়ে আবারও বেপরোয়া হয়ে ওঠে।
উল্লেখ্য গত বছরের (১৬ মে) বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মহাস্থানগড়ের পাথরপট্রি নামক স্থানে অন্ধকারে মহাস্থান শালবাগানের কুখ্যাত মাদক সম্রাজ্ঞী পারী বেগমের দুই ছেলে পারভেজ ও রাসেল মাদক সেবীদের কাছে মাদক হাতবদল করছিল।
এসময় মহাস্থান দক্ষিণপাড়া গ্রামের মৃত আজিজার রহমানের পুত্র রাজু মিয়া মালখালী তাদের ভাড়া বাড়ি থেকে ঘর ভাড়ার টাকা নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে, রাজুর হাতে টর্চ লাইট মাদক ব্যবসায়ীদের ওপর পড়লে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে। পরে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তারা রাজুকে লাঠি দিয়ে পায়ে ও মাথায় বেধড় মারপিট করে। রাজু মাটিতে লুটিয়ে পড়লে তারা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।
এসময় এলাকাবাসী রাজুকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি চিকিৎসা কেন্দ্রে নিয়ে যায়। এর আগে অনেকেই মাদকের প্রতিবাদ করায় পারীর দুই ছেলে তাদেরকেও মারপিট করেছে এমন অভিযোগও পাওয়া গেছে। উল্লেখ্য, পারী বেগমের বিরুদ্ধে দেহব্যবসা, ইয়াবা, ফেন্সিডিল সহ একাধিক মামলা রয়েছে।