বগুড়ায় আশ্রায়ন প্রকল্পে তিন’শ বিশ পরিবারের মাথাগোজার ঠাই

31

সুপ্রভাত বগুড়া (আবদুল ওহাব): বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার তেকানীচুকাইনগর ইউনিয়নের চর চুকাইনগর ও চর মহনপুরে ছয় কোটি টাকা ব্যয়ে আশ্রয়ণ প্রকল্প নির্মাণ করা হচ্ছে। এখানে ৩২০ ভূমিহীন পরিবারের মাথা গোঁজার ঠাঁই হবে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, ছয় কোটি টাকা ব্যয়ে দুটি চরে আশ্রয়ণ প্রকল্প নির্মাণ হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বিশেষ প্রকল্পে চর চুকাইনগর ও চর মহনপুরে ১৩শ’ মেট্রিক টন খাদ্য শস্যের বিনিময়ে মাটি কাটার কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এখন আশ্রয়ণ প্রকল্পে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ৬৪টি ব্যারাক নির্মাণ কাজ শুরু হবে। চর চুকাইনগরে ৪২টি ও চর মহনপুরে ২২টি।

ব্যারাকগুলোতে ৩২০ পরিবারের আশ্রয় হবে। ইতোমধ্যে সেনাবাহিনীর একটি দল প্রকল্প স্থান পরিদর্শন করেছেন। প্রকল্প ব্যয় ছয় কোটি টাকার মধ্যে চর চুকাইনগরে চার কোটি ও চর মহনপুরে ব্যয় হবে দুই কোটি টাকা। যারা বরাদ্দ পাবেন, ইতোমধ্যে তাদের প্রাথমিক তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে।

তেকানী চুকাইনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শামছুল হক মন্ডল জানান, যমুনা নদীর মধ্যবর্তী এলাকায় দুটি আশ্রয়ণ প্রকল্প নির্মাণ হচ্ছে। এতে হতদরিদ্র মানুষরা আশ্রয় লাভ করবেন। তাদের চোখেমুখে আনন্দের ছাপ ফুটে উঠেছে। সোনাতলা উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান জানান, এটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের বিশেষ প্রকল্প।

ঘরবাড়ি নেই ও ভূমিহীন ৩২০ পরিবার ওই দুটি আশ্রয়ণ প্রকল্পে বসবাসের সুযোগ লাভ করবেন। নির্মাণ কাজ তদারকি করবেন সেনা সদস্যরা । উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন জানান, বর্তমান সরকারের শাসনামলে একটি মানুষও যাতে গৃহহীন না থাকে সেজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সরকার গৃহহীন মানুষের জন্য আশ্রয়ণ প্রকল্পগুলো হাতে নিয়েছে।