বাড়িতেই তৈরী করুন তুলতুলে রসমালাই

35

সুপ্রভাত বগুড়া (রান্না-বান্না): কনফেকশনারি এবং স্নেক ফুড, টিফিন বা জল খাবার, দুধ ও দুগ্ধ জাতীয় খাদ্য, দুধ বা দুগ্ধ জাতীয় খাদ্য ঘড় ঈড়সসবহঃং রসমালাইয়ের নাম শুনলে জিভে জল চলে আসে অনেকেরই। ছোট ছোট আকারের রসগোল্লাকে চিনির সিরায় ভিজিয়ে তার উপর জ্বাল-দেওয়া ঘন মিষ্টি দুধ ঢেলে রসমালাই বানানো হয়।

বাংলাদেশের কুমিল্লার রসমালাই বিখ্যাত। চমৎকার স্বাদের এই মিষ্টি আপনি ঘরে বসে খুব সহজেই বানাতে পারেন। আজ পুষ্টি বাড়ি আপনাদের জন্য নিয়ে এলো তুলতুলে নরম রসমালাই তৈরির সবচেয়ে সহজ রেসিপি। চলুন ঝটপট জেনে নেই রসমালাই তৈরির রেসিপি ।

রসমালাই তৈরির রেসিপি

উপকরণঃ সম্মানিত পাঠক এক নজরে দেখে নিন কি কি উপকরণ লাগবে আপনার পছন্দের তুলতুলে রসমালাই তৈরি করতে।                                                                                                    তরল দুধ ১ লিটার
গুড়ো দুধ ১ কাপ
চিনি ৩ টেবিল চামচ
ডিম ১টি
বেকিং পাউডার ১ চা চামচ
ময়দা ১ চা চামচ
এলাচদানা, গুড়ো করা ২ টি এলাচ
যেভাবে বানাবেন তুলতুলে রসমালাইঃ

বড় একটি পাত্রে তরল দুধ আর চিনি মিশিয়ে ফুটাতে দিন। চুলার আচঁ খুব কম রাখুন। এবার আরেকটি পাত্রে গুড়ো দুধ, ময়দা, বেকিং পাউডার, এলাচ এর গুড়ো এবং ডিমটি ফেটিয়ে একাসাথে ভালভাবে মিশিয়ে খামির বানান। এবার ছোট ছোট বল বানান, মজার বেপার হচ্ছে দেখবেন দুধে দেবার পর বলগুলো ফুলে দ্বিগুন হয়ে যাচ্ছে।

চুলার দুধ জ্বাল দিয়ে অর্ধেক করে ফেলুন। এবার এই বল গুলো সাবধানে ফুটন্ত দুধের মাঝে ছেড়ে দিন। চামচ বা কিছু দিয়ে নাড়বেন না, ফুটতে দিন আরো কয়েক মিনিট। দেখবেন বলগুলো ফুলে উঠেছে। চুলার আচঁ খুব কম রাখুন।

বিশ মিনিট এভাবে কম আচেঁ রান্না করুন, পরে একটি মিষ্টি তুলে দেখুন ভিতরে সেদ্ধ হয়েছে কিনা। বেশি কাচাঁ থাকলে কম আচেঁ আরো কিছুক্ষন রান্না করূন। এবার চুলা থেকে নামিয়ে ঠান্ডা করে পরিবেশন করূন রসমালাই ।

টিপসঃ সবচেয়ে গুরুত্বপুর্ন টিপস হচ্ছে মিস্টি হয়ে গেলেই নামিয়ে নিবেন আর বেশিক্ষন জ্বাল দিবেন না। ২০ মিনিট হলেই একটা টেস্ট করে দেখবেন। জ্বাল বেশি হলেই মিস্টি শক্ত হয় এবং চুপসে জায় ।