বেটউইনারের সঙ্গে করা চুক্তি বাতিল করেছেন সাকিব

44
বেটউইনারের সঙ্গে করা চুক্তি বাতিল করেছেন সাকিব

বেটিং প্রতিষ্ঠান বেটউইনারের সঙ্গে করা চুক্তি বাতিল করেছেন সাকিব আল হাসান। আজ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পক্ষ এ বিষয়ে কড়া সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর তিনি  চুক্তিটি বাতিল করেন। বিষয়টি সংবাদমাধ্যমকে নিজেই নিশ্চিত করেন সাকিব। এর আগে আজ বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান, বেটউইনারের সঙ্গে সাকিব আল হাসান চুক্তি বাতিল না করলে তার জাতীয় দলেই জায়গা হবে না এবং বিসিবির সঙ্গে তার কোনো সম্পর্কও থাকবে না।

আজ ধানমন্ডির বেক্সিমকো কার্যালয়ে বিসিবি কর্মকর্তাদের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের পাপন আরও বলেন, ‘সাকিবকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। আজকের মধ্যেই সে এটার জবাব দেবে। তারপর আমরা সিদ্ধান্ত নেব।’ ‘আমাদের খুব শিগগিরই এশিয়া কাপের দল ঘোষণা করতে হবে। এর জন্যই বোর্ডের যারা ছিল সবার সঙ্গে আলাপ হলো। দল আগামী কালই দিয়ে দিতে পারি। পরশু হতে পারে। সাকিবের বিষয়টি নিয়ে দ্বিতীয়বার চিন্তা করার কোনো সুযোগ নেই।

আমি প্রথম থেকেই বলে আসছি এ ব্যাপারে জিরো টলারেন্সে আমরা। যে যেভাবেই বিষয়টাকে ব্যাখ্যা করুক আমাদের কাছে এটির কোনো সুযোগ নেই। আশরাফুলের মতো ক্রিকেটারকেও একটা সময় বাদ দেওয়া হয়েছে। এখানে আসলে কোনো সুযোগ নেই’-পাপন যোগ করেন। এর আগে ক্রীড়াভিত্তিক ওয়েবসাইট ‘বেটউইনার’ নিউজের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে চুক্তি বাতিল করতে সাকিব আল হাসানকে চিঠি দেয় বিসিবি। বাঁহাতি এ অলরাউন্ডারকে ই-মেইল করা হয়েছে বলে জানানো হয়।

বেট উইনার নিউজ হচ্ছে বেট উইনারডটকমের একটি সহপ্রতিষ্ঠান। যা অনলাইনে জুয়া খেলার একটি প্ল্যাটফর্ম হিসেবে পরিচিত।বিসিবি থেকে সাকিবকে বলা হয়, বাংলাদেশের কোনো নাগরিক ক্যাসিনো বা জুয়া-সংশ্নিষ্ট প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে পারবেন না। সংবিধানেও জুয়া-সংশ্নিষ্ট বিষয়কে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের সঙ্গে আলাদা করে কথা বলেছেন বিসিবির সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী এবং ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। তবে সাকিবের দাবি, বেটউইনার খেলাধুলার নিউজ পোর্টাল। এ কারণেই চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) বা এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলে (এসিসি) এ ধরনের প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করার ক্ষেত্রে বাধা নেই বলে জানান তিনি।