এবারের বাজেটে অগ্রাধিকার পেয়েছে কৃষিখাত

74
এবারের বাজেটে অগ্রাধিকার পেয়েছে কৃষিখাত। প্রতিকী-ছবি

ফসলের জাত উদ্ভাবন ও গবেষনায়ও থাকছে বিশেষ বরাদ্দ !

সুপ্রভাত বগুড়া (জাতীয়): করোনা মহামারির কঠিন সময়ের প্রস্তাবিত বাজেটে নতুন অর্থবছরের (২০২০-২০২১) গুরুত্ব পেয়েছে কৃষি খাত। এ খাতে বেড়েছে বরাদ্দের পরিমাণ। কৃষি উৎপাদন বাড়াতে এবং খাদ্য নিরপত্তা নিশ্চিতে বাড়ছে ভর্তুকির পরিমাণও।

প্রণোদনা থাকছে, কৃষির আধুনিকায়ন ও যান্ত্রিকিকরণে। করোনা মাহামারিতে যখন অর্থনীতি ভীষন চাপে তখন বাম্পার ফলন হয়েছে বোরো ধানের। খাদ্য ঘাটতি নেই বরং বাংলাদেশ এখন খাদ্য উদ্বৃত্তের দেশ। মহামারির সময়টিতে যখন মাঠ ভরা পাকা ফসল, তখন শ্রমিকের অভাবে বোরো ধান ঘরে ওঠা নিয়েই ছিলো সংশয়। তবে সময় মতোই কৃষকের ঘরে ফসল উঠেছে।

সেই অভিজ্ঞতা থেকেই সরকারের সামনে এখন চ্যালেঞ্জ খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি ও খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। তাই এবারের বাজেটে কৃষি খাতের বরাদ্দ ২৯ হাজার ৯৮৩ কোটি টাকা । কৃষির আধুনিকায়ন, যান্ত্রিকীকরণে ৩ হাজার ১৯৮ কোটি টাকার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে।

এখাতে ভুর্তুকি বাবদ ৯ হাজার ৫শ কোটি টাকা বরাদ্দ রেখেছেন অর্থমন্ত্রী। এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকের মাধ্যমে আরো ৫ হাজার কোটি টাকা একটি পুনঃ অর্থায়ন স্কীম চালু করা হয়েছে বলেও জানান অর্থমন্ত্রী। এছাড়া কৃষি উপকরণ, যন্ত্রাংশ আমদানিতে কর ছাড়ের প্রস্তাব করা হয়েছে।

জলবায়ু পরিবর্তন ও লবণাক্ততা সহিষ্ণু ফসলের জাত উদ্ভাবন ও গবেষনায়ও থাকছে বিশেষ বরাদ্দ। কৃষি, মৎস ও প্রাণি সম্পদ এবং খাদ্য নিরাপত্তা খাতে বরাদ্দ বাড়িয়ে ২২ হাজার ৪শ ৮৯ কেটি টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে। ফসল সংরক্ষণে সাইলো নির্মাণেও বরাদ্দ আছে। 

করোনা পরবর্তী কৃষি নির্ভর বাংলাদেশকে সামনে দিকে এগিয়ে নিতে কৃষির ওপর নির্ভর করা ছাড়া আর কোন উপায় থাকবে না বাংলাদেশের। তাই এবারের বাজেটে কৃষির ওপর গুরুত্ব দেয়া হয়েছে অনেক বেশি।