রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপীয় ইউনিয়ন

110
রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপীয় ইউনিয়ন

ইউক্রেনের বুচা শহরে যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরও নিষেধাজ্ঞার প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এদিকে, চেক প্রজাতন্ত্রই ইউক্রেনকে সরাসরি অস্ত্র সরবরাহ করতে যাচ্ছে। আজ বুধবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক খবরে বলা হয়েছে, ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে চেক প্রজাতন্ত্রই প্রথম ইউক্রেনকে অস্ত্র সরবরাহ করতে যাচ্ছে।

হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি বলেছেন, রাশিয়ায় নতুন বিনিয়োগে নিষেধাজ্ঞা দেবে যুক্তরাষ্ট্র এবং ক্রেমলিন কর্মকর্তা। এ ছাড়া রুশ কর্মকর্তাদের পরিবারের সদস্যদের ও দেশটির আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ওপর আরও নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হবে। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের খবরে বলা হয়েছে, ওয়াশিংটন নতুন করে যে নিষেধাজ্ঞা দিতে যাচ্ছে তার আওতায় পুতিনের দুই মেয়ে ছাড়াও দেশটির সবচেয়ে বড় ব্যাংকও থাকছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন পঞ্চম দফার নিষেধাজ্ঞায় রাশিয়ার কয়লা আমদানিকেও অন্তর্ভুক্ত করতে যাচ্ছে। মূলত ইউরোপের বন্দরগুলো ব্যবহার করে রাশিয়ান মালিকানাধীন জাহাজ পরিচালনা ঠেকাতেই এমন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে। এদিকে, ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে চেক প্রজাতন্ত্রই প্রথম ইউক্রেনকে সরাসরি অস্ত্র সরবরাহ করতে যাচ্ছে। সিনিয়র চেক কর্মকর্তারা বলেছেন, দেশটি ইতোমধ্যেই সোভিয়েত নির্মিত টি-৭২ মডেলের ট্যাংক ইউক্রেনকে দিয়েছেন।

তবে দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানা সেরনোকোভা পার্লামেন্টে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানি। শুধু বলেছেন, তারা যথাসম্ভব ইউক্রেনকে সহায়তা করছেন এবং সামরিক উপকরণ দিয়ে সহায়তা অব্যাহত থাকবে। ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সবচেয়ে ভয়াবহ যুদ্ধাপরাধের অভিযোগ এনেছেন রাশিয়ার বিরুদ্ধে এবং এর আন্তর্জাতিক তদন্ত দাবি করেছেন।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে দেওয়া ভাষণে তিনি রাশিয়ার নৃশংসতার একগুচ্ছ তালিকা তুলে ধরেন। একটি ভিডিও উপস্থাপন করে জেলেনস্কি বলেন, বেসামরিক মানুষদের রাস্তায় গুলি করে এবং ট্যাংকের চাপায় পিষ্ট করে মারা হচ্ছে। তবে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বরাবরই বুচায় বেসামরিক নাগরিক হত্যাকাণ্ডের কথা অস্বীকার করে আসছেন।