শাজাহানপুরে অধ্যক্ষের অভিযোগ প্রত্যাহার করতে যুবলীগ নেতার মানববন্ধন

66
শাজাহানপুরে অধ্যক্ষের অভিযোগ প্রত্যাহার করতে যুবলীগ নেতার মানববন্ধন। ছবি-ওহাব

সুপ্রভাত বগুড়া (আবদুল ওহাব শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার শাজাহানপুরে গোহাইল ইসলামিয়া স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোতাহার হোসেনের দায়ের করা অভিযোগ প্রত্যাহারের দাবীতে এলাকাবাসীর ব্যানারে মানববন্ধন করেছে উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলী ইমাম ইনোকী।
শুক্রবার ১৮ জুলাই বিকেলে তিনি নিজেই কিছু লোকজন সাথে নিয়ে এ মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করেন।

গোহাইল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি শ্রী দীনেশ চন্দ্র পালের সভাপতিত্বে ও উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম-সম্পাদক তাজনুর রহমান শাহীনের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন যুবলীগ নেতা আলী ইমাম ইনোকী নিজেই।

এসময় তিনি বলেন, এলাকার মানুষ ও অভিভাবকদের না জানিয়ে গোপনে গভনিং বডির এড্হক কমিটির প্রস্তাব বোর্ডে পাঠানো হয়েছে। এর প্রতিবাদ করায় অধ্যক্ষ তার নামে থানায় মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেছে। অপরদিকে এসব অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট উল্লেখ করে অধ্যক্ষ মোতাহার হোসেন জানিয়েছেন, এলাকার লোকজন ও অভিভাবকদের সাথে আলোচনা কর্ইে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। এছাড়া মানববন্ধনে এলাকার ৮-১০ জন লোক ছাড়া বাকী সবাই বহিরাগত ও ভাড়াটে লোকজন বলে তিনি জানিয়েছেন।

এদিকে পাল্টাপাল্টি অভিযোগের বিবরণে জানাযায়, কলেজের গভনিং বডির এড্হক কমিটির সভাপতি হতে চেয়েছিলেন উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলী ইমাম ইনোকী। কিন্তু শিক্ষা বোর্ডে পাঠানো প্রস্তাবে তার নাম নেই। যাদের সুপারিশ করা হয়েছে তারা হলেন, আওয়ামীলীগ মনোনীত গোহাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী আতোয়ার তালুকদার ফজু, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিক এবং সমাজসেবক আতাউর রহমান।

এর কারন হিসেবে ওই কলেজের অধ্যক্ষ মোতাহার হোসেন জানিয়েছেন, ২০১৩ সালের জুলাই মাসে ইনোকির বিরুদ্ধে পোয়ালগাছা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বেশ কয়েকটি গাছকাটার অভিযোগ এবং ২০০৯ সালে সরকারী রাস্তার গাছ চুরির অভিযোগ উঠে। শুধু তাই নয়, তিনি শাজাহানপুর থানার জিআর ৪৭/০৯ মামলার সাজাপ্রাপ্ত একজন ফেরারী আসামী। বিধায় এসমস্ত বিতর্কিত ও অনৈতিক কর্মকান্ডে জড়িত থাকায় এলাকায় তার গ্রহনযোগ্যতা নাই। একারনে তাকে গভর্ণিং বডির সভাপতি করা সম্ভব হয়নি।

তিনি আরও জানান, এতে যুবলীগ নেতা ক্ষিপ্ত হয়ে দেশীয় অস্ত্র হাতে ১৫ সেপ্টেম্বর তার বাসায় হামলা করে তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত ও প্রান নাশের হুমকি দেওয়া হয়। শুধু তাই নয়, তাকে অপহরণ করার চেষ্টা করে। তাই জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে শাজাাহানপুর থানায় অভিযোগ দায়ের সহ এসব বিষয়ে তিনি সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

অপরদিকে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে যুবলীগ নেতা আলী ইমাম ইনোকী মানব বন্ধনে বলেছেন, আসন্ন গোহাইল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তিনি চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতা করবেন। তাই প্রতিপক্ষ অধ্যক্ষকে দিয়ে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে এসব ষড়যন্ত্র করছেন।