শারীরিক অসুস্থতার জন্য আদালতে উপস্থিত হতে পারেননি বেগম খালেদা জিয়া

70
শারীরিক অসুস্থতার জন্য আদালতে উপস্থিত হতে পারেননি বেগম খালেদা জিয়া। ছবি-সংগ্রহ

সুপ্রভাত বগুড়া (জাতীয়): বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া শারীরিকভাবে খুবই অসুস্থ হওয়ায় স্বাভাবিক চলাফেরা করতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবী জয়নাল আবেদীন মেজবাহ। গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াসহ অন্যান্য আসামিদের বিরুদ্ধে বুধবার (৩ মার্চ) অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল।

এদিন খালেদা জিয়া আদালতে উপস্থিত হতে না পারায় তার আইনজীবী জয়নাল আবেদীন মেজবাহ সময়ের আবেদনে তার শারীরিক অবস্থার কথা উল্লেখ করেন। খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার তিন নম্বর বিশেষ আদালতের ভারপ্রাপ্ত বিচারক নজরুল ইসলাম আগামী ৫ এপ্রিল অভিযোগ গঠন শুনানির জন্য দিন ধার্য করেন। খালেদা জিয়ার আইনজীবী জয়নাল আবেদীন মেজবাহ আবেদনে বলেন, সরকারের নির্দেশে স্বাস্থ্যগত কারণে মুক্তি পান বেগম খালেদা জিয়া।

সরকার মুক্তির শর্ত হিসেবে বাসার বাইরে না যাওয়ার শর্ত আরোপ করেছে। যা লঙ্ঘন করা বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষে বিধিসম্মত নয়। একারণে তিনি আদালতে উপস্থিত হতে পারেননি।

 

 

 

২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বরে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলায় আসামি করা হয় খালেদা জিয়া, তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনকে। তেজগাঁও থানায় মামলাটি করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) উপ-পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী। মামলার পরদিন খালেদা জিয়া ও কোকোকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর জরুরি ক্ষমতা আইনে মামলাটি অন্তর্ভুক্ত করা হয়। পরের বছর ১৩ মে খালেদা জিয়াসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র দেয়া হয়।