সকালের নাস্তায় মাশরুম মাসালা অমলেট

17

সুপ্রভাত বগুড়া ( রান্না-বান্না): কালের নাস্তায় ডিম দিয়ে রুটি বা পরোটা বাঙালিদের চিরাচরিত খাবার! প্রতিদিন একইভাবে ডিম ভাজি খেতে কার ভালো লাগে, বলুন তো? প্রতিদিন সকালে নাশতার মেন্যুতে কী রাখা যায়,

এটা নিয়ে অনেকেই চিন্তায় পরে যান! মেন্যুতে একটু নতুনত্ব আনতে ও মুখের স্বাদ পরিবর্তনে মাশরুম মাসালা অমলেট বানিয়ে নিতে পারেন। এখন যেকোনো সুপারশপেই মাশরুম কিনতে পাওয়া যায়।

কম সময়ে আর খুব সহজেই এই আইটেমটি বানিয়ে নিতে পারবেন। তাহলে মাশরুম মাসালা অমলেট বানানোর পুরো রেসিপিটি জেনে নিন!

মাশরুম মাসালা অমলেট তৈরির নিয়ম
উপকরণ
মাশরুম কুঁচি- ৩ চা চামচ
ডিম– ৩টি
পেঁয়াজ কুঁচি- ২ চা চামচ
কাঁচামরিচ কুঁচি- ১ চা চামচ
ধনেপাতা কুঁচি- ২ চা চামচ
গোলমরিচের গুঁড়ো- ১/২ চা চামচ
জিরা গুঁড়ো- ১/২ চা চামচ
টমেটো কুঁচি- ২ চা চামচ
লবণ- স্বাদ অনুযায়ী
বাটার অথবা তেল- ভাজার জন্য

প্রস্তুত প্রণালী:

১) প্রথমে একটি বড় পাত্রে ডিম ফাটিয়ে নিয়ে তাতে লবণ, গোলমরিচের গুঁড়ো, সামান্য জিরা গুঁড়ো ও ধনেপাতা কুঁচি মিশিয়ে নিন।

২) এবার চুলা জ্বালিয়ে একটি প্যানে বাটার বা তেল গরম করতে দিন। চুলার আঁচ মাঝারী রাখবেন।

৩) তারপর এতে মাশরুম কুঁচি, পেঁয়াজ কুঁচি ও কাঁচামরিচ কুঁচি দিয়ে হালকা করে ভেজে নিন।

৪) ভাজা হয়ে গেলে এর মধ্যে টমেটো কুঁচি দিয়ে একটু নেড়েচেড়ে নিন। তারপর গোলানো ডিমের মিশ্রণটি ঢেলে দিন।

৫) ডিম ভাজির মতো করে পুরো প্যানে মিশ্রণটি ছড়িয়ে দিন ও ঢাকনা দিয়ে ঢেকে ১ মিনিট অপেক্ষা করুন।

৬) এরপর অমলেটটি সাবধানে উলটে দিন। দুইপাশ ভালোভাবে ভাজা হয়ে গেলে চুলা বন্ধ করে দিন।

ব্যস, মজাদার মাশরুম মাসালা অমলেট বানানো হয়ে গেলো! সকালের নাস্তায় রুটি, পরোটা বা টোস্টের সাথে দারুণ মানিয়ে যাবে এটি।

আর সাথে যদি থাকে গরম গরম মসলা চা, তাহলে তো নাস্তার টেবিল পুরোপুরি কমপ্লিট! বিকালের স্ন্যাকস হিসাবেও কিন্তু এই আইটেমটি সার্ভ করা যাবে। শুধু শুধু খেতেও কিন্তু ভালোই লাগবে।

তাহলে উপকরণগুলো হাতের কাছে থাকলে আজই বানিয়ে নিন মাশরুম মাসালা অমলেট!