সামরিক শাসন আর জঙ্গিবাদের কারণে পূর্ব এশিয়ার চেয়ে পিছিয়ে দক্ষিণ এশিয়া

111
সামরিক শাসন আর জঙ্গিবাদের কারণে পূর্ব এশিয়ার চেয়ে পিছিয়ে দক্ষিণ এশিয়া

অর্থনৈতিক-রাজনৈতিক সংকটে অস্থির দক্ষিণ এশিয়া। পাকিস্তানে রাজনৈতিক সংকট আর শ্রীলঙ্কা-নেপালে অর্থনৈতিক। সামরিক শাসন, গণতন্ত্রের অপব্যবহার আর জঙ্গিবাদের কারণে পূর্ব এশিয়ার চেয়ে পিছিয়ে দক্ষিণ এশিয়া। পূর্ব এশিয়ায় জিডিপি যেখানে ২৭ দশমিক ৫ ট্রিলিয়ন ডলার, দক্ষিণ এশিয়ায় তা ৩ দশমিক ৩ ট্রিলিয়ন।

পাকিস্তানের ৭৪ বছরের ইতিহাসে পূর্ণ মেয়াদে দায়িত্ব পালন করতে পারেননি কোনো প্রধানমন্ত্রী। সবশেষ, অনাস্থা ভোটে হেরে ক্ষমতা ছাড়তে হয় ইমরান খানকে। নতুন প্রধানমন্ত্রী হন পিএমএল-এনের প্রধান ও নওয়াজ শরিফের ভাই শাহবাজ শরিফ। গঠন করা হয় ৩৭ সদস্যের মন্ত্রিসভা। নতুন সরকারের সামনে আছে অর্থনৈতিক সংকট পুনরুদ্ধারের চ্যালেঞ্জ। কমছে রুপির মূল্য ও রিজার্ভের পরিমাণ। দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি ও রাজস্ব ঘাটতিতে পাকিস্তানের অর্থনীতি এরই মধ্যে ভঙ্গুর।

অর্থনৈতিক মন্দায় বেশ কিছুদিন ধরেই খবরের শিরোনাম হয়ে আসছে দুই কোটি জনসংখ্যার দেশ শ্রীলঙ্কা। পরিশোধ করতে পারছে না বিদেশি ঋণের কিস্তি। সম্প্রতি ২৬ মন্ত্রীর গণপদত্যাগের পর নতুন করে মন্ত্রিসভা গঠন করে রাজাপাকসে সরকার। তবুও অর্থনৈতিক সংকটে প্রেসিডেন্ট গোতাবায়ার পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভ চলছে। এমন পরিস্থিতিতে দ্রুত আর্থিক সহায়তা চেয়ে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল-আইএমএফের কাছে আবেদন করেছে শ্রীলঙ্কা।

এদিকে, নেপালে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কমে যাওয়ায় অতি জরুরি নয় এমন অনেক সামগ্রীর আমদানি বন্ধ করা হয়েছ। এর মধ্যে আছে গাড়ি, কসমেটিকস, স্বর্ণালংকার। জ্বালানি তেলের তীব্র সংকট আর বিদেশি ঋণের ভারে জর্জরিত নেপাল। সেই ঋণের কিস্তি পরিশোধের অবস্থাও নেই তাদের।

শ্রীলঙ্কা-নেপালের সংকটের জন্য চীনের ঋণ-ফাঁদের কূটনীতিকে দায়ী করছেন অনেকেই। বিশ্লেষকেরা বলছেন, ওয়ান বেল্ট ওয়ান রোড প্রকল্পের মাধ্যমে বিশ্বজুড়ে প্রভাব বলয় সৃষ্টি করে ঋণের ফাঁদে ফেলার চেষ্টা করছে বেইজিং। তবে শুধু বৈদেশিক ঋণ, ভুল রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত নয়, দুর্নীতি-স্বজনপ্রীতিও শ্রীলঙ্কার বর্তমান পরিস্থিতির জন্য দায়ী।

কিন্তু তার ঠিক বিপরীত চিত্র জাপান, তাইওয়ান, চীনসহ পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, এই মহাদেশের দুটি অংশের এমন পার্থক্যের একটি কারণ শিক্ষার হার। পূর্ব এশিয়ায় যেখানে গড় শিক্ষার হার ৯৫ শতাংশের বেশি, দক্ষিণ এশিয়ায় তা ৭৩ শতাংশের কম। যার সরাসরি প্রভাব পড়ছে, উদ্যোক্তা তৈরিতে।